রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন

করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৯, নতুন আক্রান্ত ১৮

করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৯, নতুন আক্রান্ত ১৮

গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও ১ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯ জনে।
গত ২৪ ঘন্টায় দেশে আরও ১৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা দাঁড়ালো ৮৮ জনে।
রাজধানীর মহাখালীতে স্বাস্থ্য অধিদফতরে নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে যুক্ত হয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক এ তথ্য জানান। এ সময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. আবুল কালাম আজাদ, রোগতত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিয়ার) পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (এমআইএস) ডা. মো.হাবিবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।
ব্রিফিংয়ে গত ২৪ ঘণ্টার করোনা পরিস্থিতি তুলে ধরার পর সরকারের গৃহীত বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তিনি সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।
পরে ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ১৪টি ল্যাবে আরও ৩৬৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ১৩ জন শনাক্ত হয়েছেন আইইডিসিআরে, বাকি ৫ জন ঢাকার বাইরের ল্যাবে শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে ১৫ জন পুরুষ, ৩ জন নারী। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১ জন মারা গেছেন, তার বয়স ৫৫ বছর। তিনি একজন পুরুষ এবং নারায়ণগঞ্জের বাসিন্দা ছিলেন।
তিনি জানান, ‘গত ২৪ ঘন্টায় যারা আক্রান্ত হয়েছেন এদের বয়স ১১ থেকে ২০ বছরের ১ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ২ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৪ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৯ জন এবং ষাটোর্ধ ২ জন।’
ডা.ফ্লোরা জানান, ‘আক্রান্ত ৮৮ জনের মধ্যে ৩৩ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি গেছেন। এই মুহূর্তে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩২ জন এবং ১৪ জন মৃদু লক্ষণ উপসর্গ নিয়ে আমাদের তত্ত্বাবধানে বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন।
ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ১১১ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে এবং ৯ জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে সারাদেশে ১২ হাজার ৬৬৯ জন কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১০ জনকে আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে এবং ৩ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। সবমিলিয়ে ৪০০ জনকে আইসোলেশনে নেয়া হলেও তাদের মধ্যে ৩৩৬ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়।
করোনা প্রতিরোধে দেশবাসীকে কোয়ারেন্টাইন বিধিমালা কঠোরভাবে মেনে চলার অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘করোনা ভাইরাসে প্রতিরোধে সরকার সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে ব্যক্তি পর্যায়ে সতর্ক থাকলে করোনা বিস্তার রোধ করা সম্ভব হবে।’
বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতি সম্পর্কে তিনি বলেন, এ পর্যন্ত বিশ্বে ১০ লাখ ৫১ হাজার ৬৩৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যুবরণ করেছেন ৫৬ হাজার ৯৮৫ জন। গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭৯ হাজার ৩৩২ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৬ হাজার ৬৬৪ জন।
দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এ পর্যন্ত ৬ হাজার ৫২৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যুবরণ করেছেন ২৬৭ জন। গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৪৭ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ২২ জন।(বাসস)

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com