বুধবার, ১২ মে ২০২১, ১১:৪৭ অপরাহ্ন

আগামী জুনে বাংলাদেশ সফরে আসছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল

আগামী জুনে বাংলাদেশ সফরে আসছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল

আগামী জুনে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ সফরে আসছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পক্ষ থেকে আজ এ কথা জানানো হয়েছে।।
২০০০ সালে টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার পর চতুর্থবারের মত বাংলাদেশ সফরে আসছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। আসন্ন দুই ম্যাচের সিরিজটি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপের অংশ।
বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট সিরিজের সূচিও ঘোষনা করেছে বিসিবি। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে আগামী ১১ জুন থেকে শুরু হবে সিরিজের প্রথম টেস্ট। ১৯ জুন থেকে ঢাকার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে।
২০০৬ সালে প্রথম পূর্নাঙ্গ দ্বিপাক্ষীক সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ সফরে এসেছিলো অস্ট্রেলিয়া। সফরে দু’টি টেস্ট ও তিনটি ওয়ানডে খেলেছিলো অসিরা। সেটি ছিলো বাংলাদেশের মাটিতে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ও শেষ পূর্নাঙ্গ দ্বিপাক্ষীক সিরিজ।
এরপর ২০১১ সালে ভারত ও শ্রীলংকার সাথে বিশ্বকাপ আয়োজন করেছিলো বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের ঠিক পরই, বাংলাদেশের মাটিতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলে অস্ট্রেলিয়া।
২০১১ সালের ওয়ানডে সিরিজের পর বাংলাদেশের টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজের জন্য সফর করার কথা ছিলো অস্ট্রেলিয়ার। কিন্তু নিরাপত্তার অজুহাত দেখিয়ে বাংলাদেশ সফরে আসেনি অসিরা। এমনকি তাদের দেশের মাটিতে বাংলাদেশকে আতিথেয়তা দিতেও অস্বীকার করেছিল অস্ট্রেলিয়া।
তবে শেষ পর্যন্ত ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ার দলের বাংলাদেশ সফরের মাধ্যমে অচলাবস্থাটি কেটে যায়। সেবার দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ সফর করে অসিরা। যা ছিল বাংলাদেশের জন্য একটি ঐতিহাসিক সিরিজ। কারন টেস্ট ক্রিকেটে প্রথমবারের মত অস্ট্রেলিয়াকে হারায় টাইগাররা। শেষ পর্যন্ত সিরিজটি ১-১ সমতায় শেষ হয়।
এদিকে, আয়ারল্যান্ড সিরিজেও সূচিও প্রকাশ করেছে বিসিবি। আয়ারল্যান্ড সফরে তিন ম্যাচের ওয়ানডে ও চার ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। নিজেদের দেশের কিছু ভেন্যু সংস্কারের কারনে ইংল্যান্ডের মাটিতে টি-২০ সিরিজ আয়োজন করবে আয়ারল্যান্ড, এমনটাই জানিয়েছেন ক্রিকেট আয়ারল্যান্ডের প্রধান নির্বাহি ওয়ারেন ডিউট্রোম।
এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘ তিনটি বড় দলের সফরে ১৫টি ম্যাচের সুচি থাকায় ২০২০ সালটি আয়ারল্যান্ডের সর্ব বৃহত হোম মৌসুম। স্বভাবতই অনেক ম্যাচ থাকায় এ যাবতকালে আমরা সবচেয়ে জটিল পরিস্থিতির মুখোমুখি হবো। যে কারণে আমরা একাধিক চ্যালেঞ্জের মধ্যে দিয়ে কাজ করছি। এরমধ্যে প্রধান হলো, সম্ভবত দুই মৌসুমের জন্য আমাদের চারটি আন্তর্জাতিক মাঠের একটি কমে যাওয়া। সাথে ক্লোনটার্ফের ব্যাপক সংস্কার চলছে।’
৮ মে আয়ারল্যান্ডে পৌছাবে বাংলাদেশ দল। এরপর বেলফাস্টের নর্থ ডাউনে ১১ মে, আয়ারল্যান্ড উলভসের সাথে প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ খেলবে তারা।
তিনটি ওয়ানডে হবে- ১৪, ১৬ ও ১৯ মে। সবগুলো ম্যাচই হবে বেলফাস্টের স্টরমন্টে।
আয়ারল্যান্ডের মাটিতে ওয়ানডে শেষে ইংল্যান্ডে আইরিশদের সাথে চারটি টি-২০ ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ দল। ওভালে হবে প্রথম টি-২০। চেলমসফোর্ডে ২৪ মে হবে দ্বিতীয় ম্যাচ। এসেক্সের বিস্ট্রলে ২৭ মে হবে তৃতীয় ম্যাচ। বার্মিংহামে এডজবাস্টন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে হবে সিরিজের চতুর্থ টি-২০ ম্যাচ। এরপর দেশের উদ্দেশ্যে ৩০ মে লন্ডন ছাড়বে বাংলাদেশ দল।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com