সোমবার, ১০ মে ২০২১, ১২:৩১ অপরাহ্ন

অভিশংসন থেকে রেহাই পেলেন ট্রাম্প

অভিশংসন থেকে রেহাই পেলেন ট্রাম্প

এশীয়ান সংবাদ ডেস্ক : অভিশংসন হওয়ার প্রস্তাবে এবারও রেহাই পেলেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কংগ্রেস ভবনে কলঙ্কজনক হামলার ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অভিশংসনের প্রস্তাব আনা হয় সিনেটে। সিনেট এই অভিশংসন প্রক্রিয়া চালিয়ে যাওয়ার জন্য রায় দিলেও শেষ পর্যন্ত ভোটাভুটিতে উতরে যান ট্রাম্প। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) মার্কিন সিনেটে তার অভিশংসন প্রস্তাবের ওপর ভোট হয়। এদিন ট্রাম্পকে অভিশংসনের উদ্দেশ্যে তোলা প্রস্তাবে পক্ষে ৫৭ জন ভোট দিয়েছেন। বিপক্ষে ভোট পড়েছে ৪৩টি। প্রস্তাবের পক্ষে বেশি ভোট পড়লেও ট্রাম্প উতরে গেছেন। কারণ, তাকে দোষী সাব্যস্ত করতে হলে সিনেটের দুই তৃতীয়াংশ সদস্যের সমর্থন প্রয়োজন ছিল।

সিনেটে ডেমোক্র্যাটদের আনা ওই অভিযোগে এবারও যে ট্রাম্প রেহাই পেয়ে যাবেন, তা আগেই অনুমিত ছিল।

গত ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটলে নজিরবিহীন সেই হামলায় উসকানি দেওয়ার অভিযোগে ট্রাম্পকে দোষী সাব্যস্ত করার পক্ষে তার দল রিপাবলিকান পার্টির সাত সিনেটরকে সঙ্গী হিসেবে পেয়েছে ডেমেক্র্যাটরা। কিন্তু তাদের অন্তত ১৭ জন রিপাবলিকানের সমর্থন প্রয়োজন ছিল।

সিনেটের অভিশংসন বিচার মূলত একটি রাজনৈতিক প্রক্রিয়া, ফৌজদারি বিচার নয়। যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদ কোনো প্রেসিডেন্টকে অভিশংসন করলে তাকে ওই পদ থেকে অপসারণের জন্য সিনেটে এই বিচারের আয়োজন করা হয়।

গত নির্বাচনে পরাজিত ট্রাম্প ইতোমধ্যে তার মেয়াদ শেষে বিদায় নিয়েছেন। অভিশংসন বিচারে দোষী সাব্যস্ত হলে তার আবার প্রেসিডেন্ট হওয়ার পথও বন্ধ করার সুযোগ ছিল। তবে সেই চেষ্টায় সফল হতে পারেনি ডেমোক্র্যাটরা।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটলে গত ৬ জানুয়ারির ভয়াবহ হামলার ঘটনায় সহিংসতায় উস্কানি দেবার অভিযোগ আনা হয়েছিল ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে। এ হামলার ঘটনায় ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসনের প্রস্তাব তোলেন ডেমোক্র্যাটিক আইনপ্রণেতারা।

আর সিনেটের ভোটাভুটি শেষ হওয়ার পরপরই এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেছেন, তার ‘অভিযাত্রা চলবে’।

সিনেটের বিচারে রেহাই পাওয়া ট্রাম্প ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে একজন বৈধ প্রার্থী হিসেবে বিবেচিত হবেন, যদি তাকে দল থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে তিনিই প্রথম প্রেসিডেন্ট, যিনি দুই বার প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হয়েছেন। এর আগে ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগে ২০১৯ সালে একবার প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হন ট্রাম্প। তবে সেবারও সিনেটে ভোটাভুটিতে তার পদ রক্ষা হয়।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com