May 27, 2020, 12:15 am

গাইবান্ধার মুক্তিরানী নামের এক গৃহবধূর আত্মহত্যা

গাইবান্ধার মুক্তিরানী নামের এক গৃহবধূর আত্মহত্যা

এইচ আর হিরু গাইবন্ধাঃ
গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে স্বামীর উপর অভিমান করে মুক্তি রানী (৩০)নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে ১ এপ্রিল বুধবার সকালে গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার কিরগাড়ী ইউনিয়নের পশ্চিম রামচন্দ্রপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।
খোঁজনিয়ে জানা যায়,পলাশবাড়ী উপজেলার কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের পশ্চিম রামচন্দ্রপুর গ্রামের বাসিন্দা ও ভাড়ায় মোটরবাইক চালক প্রমেশ চন্দ্রের স্ত্রী মুক্তি রানী (৩০) ঘটনার দিন সকালে সংসারের বাজার খরচ না থাকায় তাদের মাঝে কথা কাটাকাটি হয়। এতে স্ত্রী,স্বামী প্রমেশ চন্দ্রের উপর অভিমান করে সবার অজান্তে মুক্তি রানী গ্যাস জাতীয় ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করে এবং শিশু বাচ্চা অরন্য (২) তার মায়ের বুকের দুধ পান করে অসুস্থ হয়ে পড়ে।
তাৎক্ষণিক শিশুপুত্র অরন্যকে চিকিৎসার জন্য পলাশবাড়ী উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শিশুটির অবস্থা আশংকাজনক হলে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।
খবর পেয়ে পলাশবাড়ী থানার ওসি তদন্ত মতিউর রহমানের নেতৃত্বে থানা পুলিশের এস.আই হাসিব সহ সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য গাইবান্ধা মর্গে প্রেরণ করেন। এসময় অত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম রিন্টু উপস্থিত ছিলেন। মৃত মুক্তি রানী (৩০) বগুড়ার শেরপুর উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের মৃত জল পেষস্বরের কন্যা। মুক্তিরানী ২ পুত্র সন্তানের জননী।
পলাশবাড়ী থানার ওসি তদন্ত মতিউর রহমান জানান, আত্মহত্যা বলে শোনা যাচ্ছে তবে ময়না তদন্ত শেষে জানা যাবে হত্যা না আত্মহত্যা।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com