বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৫:০১ পূর্বাহ্ন

এইচআইভি আর জ্বরের অ্যান্টি-ভাইরাস মিশিয়ে তৈরি হয়েছে করোনাভাইরাসে নতুন ওষুধ

এইচআইভি আর জ্বরের অ্যান্টি-ভাইরাস মিশিয়ে তৈরি হয়েছে করোনাভাইরাসে নতুন ওষুধ

এইচআইভি আর জ্বরের অ্যান্টি-ভাইরাস নির্দিষ্ট অনুপাতে মিশিয়ে তৈরি হয়েছে এক নতুন ওষুধ। আর সেই ওষুধেই কাবু হয়েছে করোনাভাইরাস! সম্প্রতি এমনই দাবি করল থাইল্যান্ড। এই নতুন অ্যান্টি-ভাইরাসের প্রয়োগে মাত্র ৪৮ ঘণ্টাতেই এক রোগী সুস্থও হয়ে উঠেছেন বলে সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছেন থাইল্যান্ডের এক চিকিৎসক। তবে বিষয়টা এখনও গবেষণার পর্যায়েই রয়েছে। তাই বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের উপর এখনই প্রয়োগ করার ছাড়পত্র দেওয়া হয়নি।

থাইল্যান্ডের চিকিৎসক কিয়েংসাক আত্তিপর্নওয়ানিচ রবিবার দাবি করেছেন, ৭১ বছরের এক করোনা আক্রান্ত রোগীর উপর এই অ্যান্টি-ভাইরাস প্রয়োগ করা হয়। হাসপাতালে ভর্তির পর থেকেই চিকিৎসকেরা তাঁর উপরে নজর রেখেছিলেন। তাঁর শরীরে এই মিশ্রিত এইচআইভি এবং জ্বরের অ্যান্টি-ভাইরাস প্রয়োগ করার ৪৮ ঘণ্টা পর থেকেই শারীরিক অবস্থার উন্নতি হতে শুরু করে। ৪৮ ঘণ্টা আগে তাঁর শরীরে করোনাভাইরাসের পরীক্ষা পজিটিভ দেখিয়েছিল। ৪৮ ঘণ্টা পরে সেই রিপোর্টই পুরোপুরি নেগেটিভ হয়ে যায়।

এমনকি যে রোগী পুরোপুরি শয্যাশায়ী হয়ে পড়েছিলেন, তিনি বিছানায় উঠে বসতেও পারছেন। আগের থেকে অনেকটাই সু্স্থবোধ করছেন।ওই চিকিৎসক জানিয়েছেন, এই সঠিক প্রমাণিত হলেই তা প্রকাশ করা হবে।এখনও পর্যন্ত চিনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া এই ভাইরাসের আক্রমণে ৩৬০ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। চিন ছাড়িয়ে আরও ২৪টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস। এই প্রথম সম্প্রতি চিনের বাইরে ফিলিপিন্সে এক আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। তার পরই থাইল্যান্ডে করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কারের দাবি ওঠায়, অনেকটাই আশাবাদী বিশ্ববাসী।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com