রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৪৪ পূর্বাহ্ন

হাইকোর্টের রায় অমান্য করে জমি দখল

হাইকোর্টের রায় অমান্য করে জমি দখল

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:ঠাকুরগাঁওয়ে হাই কোর্টের রায় অমান্য করে একাধিক ব্যাক্তির জমি জবরদখলের অভিযোগ উঠেছে হাসির উদ্দিন ও তার তিন
ছেলের বিরুদ্ধে ।এছাড়াও তাদের দাদন ব্যাবসায় অতিষ্টিত এলাকাবাসী।
থানায় একাধিক অভিযোগ থাকা স্বত্তেও অদৃশ্য এক খুটির জোরে স্থানীয় জন প্রতিনিধিদেরও তোয়াক্কা করেন না তারা। জানা যায়, জামালপুর ইউনিয়নের পূর্ব মহেশালী গ্রামের মৃত পশির উদ্দিন  ১৯৫৬ সালে ওই এলাকার খলিলুর রহমানের কাছ থেকে ৩৭৯০ দাগে ১৯ শতক আবাদী জমি ক্রয়ের মাধ্যমে ভোগ দখল করে আসছিল। অপরদিকে হাসির উদ্দিন ১৯৯৫ সালে খলিলুর রহমানের অংশিদারের কাছে একই দাগে ২৪ শতক জমি ক্রয় করে এবং সঠিক অবস্থান ও ম্যাপ না থাকায় হাসির উদ্দিন জোর করে পশির উদ্দিনের জমি দখল করে। এ ব্যাপারে দু পক্ষের মধ্যে ঠাকুরগাঁও নিম্ন আদালতে দীর্ঘদিন মামলা চললে হাসির উদ্দিন উচ্চ আদালতের স্মরনাপন্ন হয়। কিন্তু পরবর্তীতে উচ্চ আদালত পশির উদ্দিনের পক্ষেই রায় দেয়। সে রায় নিম্ন আদালত পেয়ে ২০১০ সালে ২০ সেপ্টেম্বর প্রশাসন সরজমিনে গিয়ে ওই ১৯ শতক জমিতে লাল পতাকা দিয়ে ঢোল পিটিয়ে পসির উদ্দিনের অংশিদারদের বুঝিয়ে দিলেও আবারো দখল করে হাসির উদ্দিন ও তার ছেলেরা। গত ২ জানুয়ারী মৃত পশির উদ্দিনের অংশের ১৫০ টি মেহগনি গাছ কর্তন সহ সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে  রক্তাক্ত করে পশির উদ্দিনের ছেলে গোলাম মোস্তফার স্ত্রী লুৎফা ও ইসমাইলের স্ত্রী নুর নাহার বেগমকে। এ ঘটনায় ৭ জানুয়ারী পশির উদ্দিনের ছেলে ইসমাইল হোসেন বাদি হয়ে হাসির উদ্দিন ও তার ছেলেদের সহ ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে ঠাকুরগাঁও থানায় মামলা দায়ের করে। পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে তিনজনকে গ্রেফতার করে।
এ ব্যাপারে মৃত পশির উদ্দিনের ছেলে গোলাম মোস্তফা ও ইসমাইল হোসেন বলেন, টাকার গরম আর পেশীশক্তির জোরে এলাকার মানুষকে ভয়ভীতি দেখিয়ে প্রভাব খাটায় তারা। তাই সম্মান নষ্টের ভয়ে তাদের বিরুদ্ধে কেউই কথা বলেননা। এ জন্যই তার পিতার কেনা জমিটি আদালতের রায় হওয়ার পরেও দখলে পাওয়া যাচ্ছেনা। ওই এলাকার মেরাজুল,কালাম , তফাজুল, হরিদাশ, অমল কুমার, সিরাজুল সহ আরো একাধিক ব্যাক্তি অভিযোগ করে বলেন আমাদের বাপ দাদার পৈত্রিক সম্পত্তিও তারা জবর দখল করে রেখেছে। এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যানকে লিখিত অভিযোগ দিলেও চেয়ারম্যানকেও তোয়াক্কা করে না তারা।অভিযুক্ত হাসির উদ্দিনের পক্ষে তার ছেলে মহসিন মৃত পশির উদ্দিনের পরিবার উচ্চ আদালত থেকে রায় পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে।স্থানীয় ইপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম জানান, তাদের বিরুদ্ধে ভূমি জবরদখল, দাদন ব্যাবসা সহ একাধিক অভিযোগ রয়েছে। সালিশ বৈঠকে তাদের বিভিন্ন সময়ে ডাকলেও তারা আমাদের তোয়াক্কা করেনা।
ঠাকুরগাঁও সদর থানার অফিসার ইনচার্জ তানভিরুল ইসলাম জানান, আমরা লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর ৩ জনকে তাৎক্ষনিক গেফেতার করেছি এবং  বাকিরা পলাতক রয়েছে। তাদের দ্রুত গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com