বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:৩৮ পূর্বাহ্ন

রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষায় নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কিত হিউম্যান রাইটস ওয়াচের প্রতিবেদন ভিত্তিহীন: দাবি বাংলাদেশের

রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষায় নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কিত হিউম্যান রাইটস ওয়াচের প্রতিবেদন ভিত্তিহীন: দাবি বাংলাদেশের

কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়া চার লাখের মতো রোহিঙ্গা শিশুর শিক্ষা গ্রহণে বাংলাদেশ নিষেধাজ্ঞা জারি করে রেখেছে বলে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ গত মঙ্গলবার যে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে, তা ভিত্তিহীন ও মিথ্যাচার বলে দাবি করেছেন বাংলাদেশ সরকারের শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোঃ মাহবুব আলম তালুকদার। এ প্রতিবেদককে তিনি জানিয়েছেন, প্রতিটি ক্যাম্পে রোহিঙ্গা শিশুদের অনানুষ্ঠানিক শিক্ষা দেয়া হচ্ছে। দুটি নিবন্ধিত শিবিরে বাংলাদেশের জাতীয় শিক্ষাক্রম অনুসরণ করা হচ্ছে- সেখানে বাংলাও পড়ানো হচ্ছে।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন জানিয়েছেন, উন্নয়ন সংস্থাগুলোর সাথে সমন্বয় করে রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষার সুযোগ আরো সম্প্রসারণ করা হচ্ছে।
সম্প্রতি রোহিঙ্গা পরিচয় গোপন করে রহিমা আক্তার খুশি প্রকাশ রাহী ও তাঁর ছোট বোন সেলিনা আক্তারের পরিচিত প্রকাশ হওয়ায় দু’টি বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তাদের ছাত্রত্ব বাতিল করার পরপরই হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তবে জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, ঐসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সরকার কোন হস্তক্ষেপ করেনি, ছাত্রত্ব বাতিল হওয়া শিক্ষার্থীরাও সরকারের কাছে কোন ধরণের আবেদন করেনি।

কক্সবাজারের ৩৪টি ক্যাম্পে ৩ হাজারেরও বেশি লার্নিং সেন্টারসহ ৫ হাজারের মত লার্নিং সুবিধার ব্যবস্থা রয়েছে। সেখানে রোহিঙ্গা শিশুদের অনানুষ্ঠানিক শিক্ষা দেয়া হয়। আর কক্সবাজারের দু’টি নিবন্ধিত শরণার্থী ক্যাম্প- কুতুপালং ও নয়াপাড়ায় নিম্ন মাধ্যমিক পর্যায়ের আনুষ্ঠানিক শিক্ষার ব্যবস্থা রয়েছে। সেখানে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত পড়ালেখা করার সুযোগ পাচ্ছেন নিবন্ধিত শরণার্থী শিশুরা।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com