বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২১, ০১:৫২ অপরাহ্ন

তুরস্ক যুক্তরাষ্ট্রকে মারাত্মক পরিস্থিতির মধ্যে ফেলেছে : যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী

তুরস্ক যুক্তরাষ্ট্রকে মারাত্মক পরিস্থিতির মধ্যে ফেলেছে : যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মার্ক এস্পার বলছেন সিরিয়ার উত্তর পুর্বাঞ্চলে কুর্দিদের বিরুদ্ধে তুরস্কের আক্রমণ ছিল অপ্রত্যাশিত এবং ঐ অঞ্চলের নিরাপদ জোনে রাশিয়ার সঙ্গে যৌথ ভাবে টহল দেয়ার চুক্তি সম্পাদন করে তুরস্ক ভুল পথে এগুচ্ছে। ব্রাসেলস’এ নেটো বৈঠকের প্রাক্কালে German Marshall Fund এর অনুষ্ঠানে এস্পার বলেন তুরস্ক যুক্তরাষ্ট্রকে একটি মারাত্মক পরিস্থিতির মধ্যে ফেলেছে।

সিরিয়ার উত্তরাঞ্চল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সৈন্য প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তের পর পরই তুরস্কের বাহিনী সেখানে প্রবেশ করে। যুক্তরাষ্ট্র তুরস্কের ঐ আক্রমণ অভিযান থামিয়ে অস্ত্র বিরতি সম্পাদনে সাহায্য করে। গতকালই প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প বলেন তাঁকে তুরস্ক এই আশ্বাস দিয়েছে যে এই অস্ত্র বিরতি স্থায়ী হবে। তিনি বলছেন এর ফলে যুক্তরাষ্ট্র, আংকারা সরকারের উপর সম্প্রতি আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিতে পারবে।

ট্রাম্প বলেন নেটো মিত্র তুরস্ক এবং সিরিয়ান ডেমক্র্যাটিক ফোর্সেস, যারা কিনা ইসলামিক স্টেটকে পরাস্ত করতে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন অভিযানে গুরুত্বপূর্ণ শরিক দল ছিল, তাদের মধ্যকার লড়াই থামাতে পেরে যুক্তরাষ্ট্র একটা বড় রকমের কাজ করলো।

ট্রাম্প যখন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় অস্ত্র বিরতিকে দারুণ ফলাফল বলে বর্ণনা করেছেন, তার ঠিক একদিন আগেই তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেজেপ তাইয়েব এরদোয়ান রাশিয়ার সঙ্গে একটি পৃথক চুক্তির কথা ঘোষণা করেন। ঐ চুক্তি অনুযায়ী তুরস্ক এবং রাশিয়ার সেনাদের সীমান্ত এলাকায় যৌথ টহল দেয়ার বিধান রাখা হয়েছে।

এসডিএফ মুখপাত্র মুস্তাফা বালি বৃহস্পতিবার বলেছেন যে তুরস্ক সমর্থীত বাহিনী, অস্ত্র বিরতি লংঘন অব্যাহত রেখেছে।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com