শনিবার, ২৪ Jul ২০২১, ১১:২২ পূর্বাহ্ন

লক্ষ্মীপুরে দুই তলা ফাউন্ডেশনে ৪ তলা ভবন এলাকায় আতঙ্ক

লক্ষ্মীপুরে দুই তলা ফাউন্ডেশনে ৪ তলা ভবন এলাকায় আতঙ্ক

অ আ আবীর আকাশ, লক্ষীপুর:
ভবনের দুই তলা ফাউন্ডেশন নিয়ে তিন তলার কাজ সম্পন্ন করে চতুর্থ তলার কাজ করছেন বলে অভিযোগ রয়েছে রুহুল আমিন নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। সাড়ে ৪ ফিট ব্যাজের গাঁথুনিতে ৪ সুতা রডের পিলারে এই ঝুঁকিপূর্ণ ভবন নির্মাণের কাজ চলছে।
ঘটনাটি লক্ষীপুরের ৭ নং বশিকপুর ইউনিয়নের পোদ্দার বাজারের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সংলগ্ন পোদ্দার বাড়িতে।
একই বাড়ির রফিকুল্লার ছেলে আমির হোসেন, শামসুল হুদা কাঞ্চন, শামসুদ্দিন বকুল ও নুরনবী বলেন-‘ আমরা গরীব অসহায়, আমাদের বসতঘর ঘেঁষে রুহুল আমিন দুই তলা ফাউন্ডেশন নিয়ে চারতলা করছেন। কখন ভবন ভেঙ্গে আমাদের ঘরের উপরে পড়ে, সে ভয়ে আতঙ্কে আমাদের ঘুম নেই। আমাদের স্ত্রী সন্তান নিয়ে আমরা কোথায় যাবো? ‘
ভবনের মালিক রুহুল আমিন ঢাকার নয়াবাজারে কাগজের ব্যবসা করছেন। তিনি সপরিবারে ঢাকায় স্থায়ী বসবাস করছেন বলেও তারা জানান।
জানা গেছে পোদ্দার বাড়ির দরজায় পোদ্দার বাজার। এ সুবাদে ভাড়া দেয়ার লোভে রুহুল আমিন দুই তলা ফাউন্ডেশনে চারতলা করছেন। ৪ সুতা রডের ঝুঁকিপূর্ণ ভবন এতটাই আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে যে খোদ ভবনের এক নির্মাণ মিস্ত্রি নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বলেন-‘ আমিও কাজ করতে এসে শুনেছি এবং দুই তলা ফাউন্ডেশন নিয়ে করা এ ভবন।’
কিভাবে কাজ করছেন? জানতে চাইলে নির্মাণশ্রমিক বলেন -‘কাজ করতে এসেছি পেটের দায়ে, যে কোনো সময় যে কোনো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।’
এলাকার অনেকেই নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন- ‘হ্যাঁ; রুহুল আমিনের বিল্ডিংয়ের দুই তলা ফাউন্ডেশন। সে করতে-করতে চার তলা পর্যন্ত করছেন।’ যে কোন সময় বড় ধরনের বিপদের আশঙ্কা করছেন তারাও।
ভবনের মালিক রহুল আমিনের সাথে যোগাযোগের একাধিক চেষ্টা করেও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
রুহুল আমিনের ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের একেবারেই লাগোয়া আমির হোসেনের স্ত্রী ও চার ছেলেমেয়ে শামসুল হুদারও চার ছেলেমেয়ে, শামসুদ্দিন বকুলের তিন ছেলেমেয়ে, নিয়ে তারা প্রত্যেকেই ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের পাশেই বাস করছেন। বড় ধরনের দুর্ঘটনা না ঘটতেই তারা প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছেন।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com