August 16, 2019, 7:16 pm

সংবাদ শিরোনাম :
বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে শেয়ার বাজারের দরপতনে অর্থনীতিবিদরা বৈশ্বিক মন্দার আভাষ দিচ্ছেন। যুক্তরাষ্ট্রের দুই আইনপ্রনেতাকে ইসরাইলে প্রবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা মিয়ানমারে সন্ত্রাসী হামলায় অন্তত ১৪ জন নিহত শোক দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০১৯ বাড়ির ছাদ নোংরা থাকায় এবং এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যাওয়ায় গুলশানে এক ব্যক্তিকে জরিমানা গাইবান্ধা – ঢাকা বিআরটিসির এসি বাস সার্ভিসের উদ্ধোধন রুশ যাত্রীবাহী বিমান ভুট্টাক্ষেতে জরুরি অবতরণ চীনা পন্যের ওপর ১০ শতাংশ কর সাময়িকভাবে বন্ধ করেছে যুক্তরাস্ট্র মালয়েশিয়া নিখোঁজ হওয়া ১৫ বছর বয়সী ফ্রেঞ্চ-আইরিশ তরুনীর ময়নাতদন্ত হয়েছে
বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার রফতানি প্রবৃদ্ধি সূচকে বাংলাদেশ অবস্থান দ্বিতীয়

বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার রফতানি প্রবৃদ্ধি সূচকে বাংলাদেশ অবস্থান দ্বিতীয়

বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডব্লিউটিও) রফতানি প্রবৃদ্ধির সূচকে দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে বাংলাদেশ। গত এক দশকে দক্ষিণ এশীয়ার এই প্রথম কোন দেশ তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে আসতে সক্ষম হয়েছে।
ডব্লিউটিও পরিসংখ্যাণ পর্যালোচনা ২০১৯, এর তথ্যমতে তালিকার প্রথম অবস্থানে রয়েছে ভিয়েতনাম। তবে বিশ্বের বড় অর্থনীতির দেশ চীন, ভারত, মেক্সিকো, আরব-আমিরাত, তুরস্ক, ব্রাজিলের অবস্থান তালিকার পেছনের দিকে।
গত সপ্তাহে প্রকাশিত ডব্লিউটিও পর্যালোচনায় সংস্থাটি উল্লেখ করেছে তালিকার শীর্ষে থাকা ভিয়েতনামের রফতানি প্রবৃদ্ধি ১৪ দশমিক ৬ শতাংশ, যেখানে বাংলাদেশের ৯ দশমিক ৮ শতাংশ,চীনের ৫ দশমিক ৭ এবং ভারতের ৫ দশমিক ৩ শতাংশ।
ডব্লিউটিও তথ্যমতে,রফতানি আয়ের দিক দিয়ে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের ৪২তম দেশ এবং আমদানিতে ৩০তম অবস্থানে রয়েছে। তৈরি পোশাকই বাংলাদেশের রফতাতির আয়ের এখনও মূল শক্তি, বৈশ্বিক বাজারে যার অংশগ্রহণ দিন দিন বাড়ছে।
২০০০ সালে তৈরি পোশাকের বৈশ্বিক বাজারে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ ছিল ২ দশমিক ৫ শতাংশ যা এখন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ দশমিক ৫ শতাংশে। তৈরি পোশাকের বিশ্ববাজারে চীনের পরেই বাংলাদেশের অবস্থান। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ দীর্ঘদিন ধরে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। ভিয়েতনাম পোশাকের বৈশ্বিক বাজারে উদীয়মান শক্তি হিসেবে উঠে এসেছে।
ডব্লিউটিও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে,ভিয়েতনামের রফতানি প্রবৃদ্ধি মূলত ইলেকট্রিক্যাল পণ্য নির্ভর। ২০০৮ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে ৩০গুন রফতানি আয় বেড়েছে দেশটির। অন্যদিকে বাংলাদেশের রফতানি আয় তৈরি পোশাক খাত নির্ভর। গত বুধবার বাংলাদেশ চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরে ৫৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের রফতানি লক্ষ্যমাত্রা ঘোষণা করেছে। সেখানেও সিংহভাগ রফতানি আয়ের জন্য পোশাককে বেছে নেয়া হয়েছে।(বাসস)

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com