রবিবার, ২৫ Jul ২০২১, ১২:৩১ অপরাহ্ন

টেক্সাসের এল পাসওর শপিং মলে বন্দুকধারীর গুলীতে ২০ জন নিহত

টেক্সাসের এল পাসওর শপিং মলে বন্দুকধারীর গুলীতে ২০ জন নিহত

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের এল পাসো এলাকায় ওয়ালমার্টের একটি স্টোরে বন্দুকধারীর এলোপাথারি গুলিতে শনিবার ২০ জন নিহত হয়েছে। এতে আরো অনেক আহত হয়েছেন।

গতকাল বেলা ১১টায় সিয়েরা ভিস্তা শপিং মলে ওয়ালমার্টের স্টোরে এক ব্যক্তি গুলি চালিয়ে এদের হত্যা করে। পুলিশ হামলাকারী শ্বেতাঙ্গ এক ব্যক্তিকে আটক করেছে। আটককৃত ব্যক্তির নাম প্যাট্রিক ক্রসিয়াস। খবর এএফপি’র।
এটি যুক্তরাষ্ট্রে ধারাবাহিক বন্দুক হামলার সর্বশেষ ঘটনা। এর আগে ২০১৭ সালের ১ অক্টোবর লাস ভেগাসে কান্ট্রি মিউজিক কনসার্টে বন্দুক হামলায় ৫৮ জন নিহত এবং ৫০ জনের বেশী লোক আহত হয়।
২০১৬ সালের ১২ জুন অরল্যান্ডো নগরীর ফ্লোরিডা নাইটক্লাবে বন্দুক হামলায় ৪৯ জন নিহত হয়। এ ঘটনায় পুলিশের গুলিতে হামলাকারী নিহত হয়।
২০১২ সালের ডিসেম্বরে কানেকটিকাটে স্যান্ডি হুক এলিমেন্টারি স্কুলে বন্দুকধারীর গুলিতে ২০ জন নিহত হয়, এদের মধ্যে ১৪ শিশু স্কুল শিক্ষার্থী, তাদের বয়স ৬ থেকে ৭ বছর।
২০১৭ সালের ৫ নভেম্বর টেক্সাসের সান অন্টারিও কাছে একটি চার্চে রোববারের প্রার্থনার সময় বন্দুকধারীর গুলিতে ২৫ জন নিহত ও অপর ২০ জন আহত হয়।
২০১৮ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি ফ্লোরিডার পার্কল্যান্ডে একটি স্কুলে বন্দুকধারীর হামলায় ১৪ শিক্ষার্থীসহ ১৭ জন নিহত হয়। হামলাকারী এই স্কুলেরই প্রাক্তন এবং বহিস্কৃত এক ছাত্র ।
২০১৫ সালের ডিসেম্বরে বন্দুক হামলায় ক্যালিফোর্নিয়ায় সান বারনারদিনো পার্টি সেন্টারে ১৪ জন নিহত ও ২২ জন আহত হয়।
২০১৯ সালের ৩১ মে ভার্জিনিয়া বিচে বন্দুক হামলায় ১২ জন নিহত হয়।
২০১৮ সালের ৭ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের এক মেরিন সেনার বন্দুক হামলায় ক্যালিফোর্নিয়ার এক বারে ১২ জন নিহত হয়।
২০১২ সালের জুলাইয়ে কলোরাডো অঙ্গরাজ্যে ব্যাটমান ফ্লিম শো’তে বন্দুক হামলায় ১২ জন নিহত এবং ৭০ জন আহত হয়।
২০১৮ সালের ২৭ অক্টোবর পেনসেলভিয়ার পিটসবুর্গ সিনাগগে বন্দুক হামলায় ১১জন নিহত হয়।
২০১৮ সালের ১৮ মে টেক্সাসের এক স্কুলে বন্দুক হামলায় ৮ স্কুল শিক্ষার্থীসহ ১০ জন নিহত হয়।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com