শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:২৯ পূর্বাহ্ন

ঈদুল আজহার আগে পেঁয়াজসহ নিত্যপণ্যের মূল্য নির্ধারণে আইনি নোটিশ

ঈদুল আজহার আগে পেঁয়াজসহ নিত্যপণ্যের মূল্য নির্ধারণে আইনি নোটিশ

ঈদুল আজহার আগে সিন্ডিকেট করে অনৈতিক ও বেআইনিভাবে মূল্যবৃদ্ধি ঠেকাতে ঈদ পর্যন্ত পেঁয়াজসহ অন্য নিত্যপণ্যের মূল্য নির্ধারণ এবং তা ঘোষণার দাবিতে ভোক্তা অধিকার সংস্থা ‘কনসাস কনজ্যুমার্স সোসাইটি’ (সিসিএস) নোটিশ পাঠিয়েছে। নোটিশে নিত্যপণ্যের মূল্য নির্ধারণ ও ঘোষণা না করা হলে তার কারণ জানতে চাওয়া হয়েছে।

খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের (ডিএনসিআরপি) মহাপরিচালক ও ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) চেয়ারম্যানের কাছে ওই নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

ঈদের এক মাস আগেই সিন্ডিকেট করে পেঁয়াজের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে  বৃহস্পতিবার ভোক্তা অধিকার নিয়ে কাজ করা বেসরকারি সংস্থা সিসিএসের পক্ষে ডাক ও রেজিস্ট্রিযোগে এ নোটিশ পাঠিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. আবদুল মোমিন।

নোটিশে বলা হয়েছে, ঈদ সামনে রেখে সম্প্রতি অনৈতিক ও অবৈধ সিন্ডিকেট করে পণ্যের মূল্যবৃদ্ধি করা হয়েছে। বিশেষত পেঁয়াজের পর্যাপ্ত মজুদ থাকার পরও মূল্য দ্বিগুণ করা হয়েছে।

নোটিশে আরো বলা হয়েছে, আগামী তিন দিনের মধ্যে উপযুক্ত ব্যবস্থা বা জবাব না পেলে হাইকোর্টে এর প্রতিকার চেয়ে রিট করা হবে।

উল্লেখ্য, রাজধানীর বাজারে হঠাৎ দ্বিগুণ দামে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। খুচরা বাজারে কয়েক দিনের ব্যবধানে ২৫ টাকার ভারতীয় পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকায়। ৩০ টাকার দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৫০-৫৫ টাকায়।

পেঁয়াজের দাম বাড়ার চিত্র টিসিবির দৈনিক বাজারমূল্য তালিকায়ও দেখা গেছে। তালিকা অনুযায়ী এক সপ্তাহ আগে যেখানে দেশি পেঁয়াজের দাম ছিল ২৫-৩০ টাকা, বুধবার (১০ জুলাই) সেটা বিক্রি হয়েছে ৪৫-৫০ টাকায়। আমদানি করা পেঁয়াজের দাম এক সপ্তাহ আগে ছিল ২৮-৩৫ টাকা, তা বিক্রি হয়েছে ৪০-৪৫ টাকায়

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com