July 20, 2019, 4:11 pm

সংবাদ শিরোনাম :
সৌদি আরবে আমেরিকার সৈন্য নেয়ার অনুমোদন প্রিয়া সাহার বক্তব্য সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট, কাল্পনিক ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত:সেতুমন্ত্রী ছেলে ধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে হত্যা ফৌজদারী অপরাধ: ডিএমপি প্রিয়া সাহার অভিযোগ ‘ভয়ঙ্কর মিথ্যাচার’ : পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শিশুদের ফেসবুক আসক্তি থেকে ফেরাতে গার্ডিয়ানের সচেতনতা জরুরি তালতলীতে একাধিক মামলার পলাতক আসামি গ্রেপ্তার নারায়ণগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে যুবক নিহত আটক-১ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলতে ঢাকা ছেড়ে গেলো বাংলোদেশ দল সারা দেশে চলমান বন্যা দীর্ঘস্থায়ী হবে না, ত্রাণ সামগ্রীর কোনো অভাব নেই: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ইরানি ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি যুক্তরাষ্ট্র, ইরান তা প্রত্যাখ্যান করেছে
চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে শিশু ধর্ষণ মামলায় ১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে শিশু ধর্ষণ মামলায় ১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড

দীর্ঘ ৯ বছর পর চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে শিশু (১১) ধর্ষণ মামলায় একজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। আজ চুয়াডাঙ্গা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক জিয়া হায়দার আসামীর অনুপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। সাজা প্রাপ্ত আসামি হল- চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার মৃগামারি গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে শাহাবুল হক।
মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, ২০১০ সালের ৩০ মার্চ বিকেলে প্রতিবেশী শাহাবুল হক উপজেলার আন্দুলবাড়িয়া গ্রামে মেলা দেখার নাম করে শিশুটিকে নিয়ে যায়। মেলা দেখে রাতে বাড়ি ফেরার সময় শাহাবুল হক শিশুটিকে জুসের সাথে চেতনানাশক ওষুধ খাওয়ালে সে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। তারপর শিশুটিকে উপজেলার দেহাটি গ্রামের একটি মেহগুনি বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। শিশুটি রক্তাক্ত জখম হলে শাহাবুল রাতে দেহাটি গ্রামে তার এক আত্মীয় বাড়িতে নিয়ে চিকিৎসা দেয়। পরের দিন সকালে তাকে শাহাবুল তার শ্বশুর বাড়ি আন্দুলবাড়িয়া গ্রামে রেখে পালিয়ে যায়। শিশুটির পরিবারের সদস্যরা খোঁজ পেয়ে বিকেলে আন্দুলবাড়িয়া গ্রাম থেকে মৃগামারি গ্রামের নিজ বাড়িতে নিয়ে যায়। বাড়িতে আসার পর শিশুটি তার মায়ের কাছে ধর্ষণের বিষয়টি জানায়। রাতে শিশুটিকে আহত অবস্থায় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শিশুটির পিতা বাদি হয়ে দুই জনের নাম উল্লেখ করে জীবননগর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। জীবননগর থানার এসআই কেরামত আলি মামলার তদন্ত শেষে ২০১০ সালের ১৫ জুন দুই জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। দীর্ঘ ৯ বছর পর মামলার সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আজ চুয়াডাঙ্গা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক জিয়া হায়দার ১২ জন সাক্ষীর মধ্যে ৭ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামির অনুপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। রায়ে শাহাবুল হককে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। অন্য আসামিকে খালাস দেয় আদালত।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com