September 18, 2019, 6:26 pm

সংবাদ শিরোনাম :
সৌদি আরবের তেল ক্ষেত্রে ড্রোন ও ক্ষেপনাস্ত্র আক্রমণের সুত্রপাত ইরান থেকে যুক্তরাষ্ট্র নিউইয়র্কে বাংলাদেশ-মিয়ানমারের পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের বৈঠকের সম্ভাবনা যুুক্তরাজ্যের ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশের ডিজিটাল প্লাটফর্মে বিনিয়োগে আগ্রহী : পলক সরকার রেলখাতকে অধিক গুরুত্ব দিয়েছে : নুরুল ইসলাম সুজন নার্সিং প্রশিক্ষণ আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত হবে : প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী ইউএনজিএ’তে রোহিঙ্গা প্রশ্নে সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব পেশ করবেন : মোমেন জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ফাইনালে উঠলো বাংলাদেশ জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে শুক্রবার নিউইয়র্ক যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতু চালুর দিন থেকে সেতু হয়ে ভাঙ্গা পর্যন্ত ট্রেন চলবে : রেলপথ মন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী আরো দু’টি বোয়িং বিমান কেনার ইঙ্গিত দিলেন
  ছেলেধরা গুজবে কান না দিয়ে সন্তানদের স্কুলে পাঠান : লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার

  ছেলেধরা গুজবে কান না দিয়ে সন্তানদের স্কুলে পাঠান : লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার

 অ আ আবীর আকাশ,লক্ষ্মীপুর :
লক্ষ্মীপুরে গত কয়েকদিন ধরে আশপাশের বিভিন্ন অঞ্চলগুলোতে ‘কল্লাকাটা’ কিংবা ‘ছেলেধরা’ সংশ্লিষ্ট কিছু খবর আসছে বিভিন্ন মিডিয়ায়।। যদিও এখন পর্যন্ত এসব ঘটনার একটিরও কোনো প্রমাণ পায়নি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। তাই বিষয়টি সম্পূর্ণ গুজব মনে করেন লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার আ স ম মাহাতাব উদ্দিন। তিনি জানান, মাঠপর্যায়ে এনিয়ে সার্বক্ষণিক কাজ করছে পুলিশ।
০৯ জুলাই মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় এ তথ্য জানান লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার।
এসময় পুলিশ সুপার বলেন, সবাই শুনেছে কিন্তু এরকম কোনো ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়নি। আমরা অভিভাবক ও বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের আশ্বস্ত করছি এবং এ ধরনের গুজব যাতে বিশ্বাস না করেন সেজন্য বলছি। আমরা সবাইকে সতর্ক হতে বলবো কিন্তু আতঙ্কিত নয়। আপনাদের নিরাপত্তায় আইন-শৃংখলা বাহিনী প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে।
সম্প্রতি লক্ষ্মীপুরের বিভিন্নস্থানে ছেলেধরা সন্দেহে কয়েকজনকে আটক করে স্থানীয় জনতা। পরে পুলিশের নিকট তাদেরকে সোপর্দ করা হয়। এ বিষয়ে পুলিশ সুপার বলেন, আটককৃতদের বেশির ভাগই মানসিক ভারসাম্যহীন। তাই গুজবে কান না দিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের বিদ্যালয়ে পাঠানোর জন্য অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
সূত্রে জানা যায়, এসব খবর ছড়িয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যস্ত রেখে অন্য কোনো অপরাধ সংগঠিত করার পাঁয়তারা চলছে কিনা তা যেমন খতিয়ে দেখা হচ্ছে, তেমনি গলা কেটে নিয়ে যাওয়া’ কিংবা ‘ছেলেধরা’ আতঙ্ক ছড়িয়ে অভিভাবকদের সন্তানদের সঙ্গে বিদ্যালয় কিংবা কোচিংয়ে পাঠিয়ে চুরি বা ডাকাতি সংগঠিত হওয়ার কোনো বিষয় রয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কেউই চোখে কিছু দেখেননি, সবাই শুনেছেন। আবার নামে-বেনামে অনেক ফেসবুক আইডি থেকে তথ্য-প্রমাণ ছাড়া এ ধরনের গুজবের খবরও ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে।
এ বিষয়ে লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার আ স ম মাহাতাব উদ্দিন আরো বলেন, ‘আমি মনে করি, পুলিশকে ব্যস্ত রাখার কৌশল কিংবা পদ্মাসেতুর বিষয়ে গুজব ছড়িয়ে সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার হতে পারে। মনে রাখতে হবে এরকম একটা ঘটনা ঘটলে তা কিন্তু সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হয়ে যায়। অপপ্রচারকারীদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com