September 17, 2019, 7:19 am

সংবাদ শিরোনাম :
ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গা নাম অর্ন্তভুক্তির ঘটনা তদন্ত শুরু করেছে দুদক খালি পা, কাজের পোশাকে সৌদি আরব থেকে ফিরলেন ১৭৫ কর্মী হুমকি না থাকলে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ে আলোচনা সম্ভব উত্তর কোরিয়া লক্ষ্মীপুর বিডি ক্লিনের পরিচ্ছন্নতা অভিযান লক্ষ্মীপুরে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত ঘুষ-দুর্নীতি ও নৈতিক অবক্ষয়ের প্রতিবাদে ও প্রতিরোধে ৬৪ জেলার ডিসিকে স্মারকলিপি প্রদান  গৌরীপুরে রবিদাস/দলিত সম্প্রদায়ের নামে বরাদ্দকৃত স্যানিটারী ল্যাট্রিন পরিদর্শন টেকসই উন্নয়নের জন্যে দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন অপরিহার্য …….লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল বরগুনা জেলার শ্রেষ্ঠ অফিস ইনচার্জ  পুরস্কৃত হলেন তালতলী থানার ওসি শেখ শাহিনুর রহমান বাংলাদেশ রবিদাস উন্নয়ন পরিষদ গৌরীপুর শাখার কার্যক্রমে ভোগান্তি
ইন্টারনেট ও অ্যাপ ব্যবহার করে যাত্রীরা ট্রেনে যাতায়াতের জন্য ১ লাখ ৬৬ হাজার ৬ শ’ ৮৭টি টিকিট ক্রয়

ইন্টারনেট ও অ্যাপ ব্যবহার করে যাত্রীরা ট্রেনে যাতায়াতের জন্য ১ লাখ ৬৬ হাজার ৬ শ’ ৮৭টি টিকিট ক্রয়

এবারের ঈদ উপলক্ষে ইন্টারনেট ও অ্যাপ ব্যবহার করে রেলপথ যাত্রীরা ট্রেনে যাতায়াতের জন্য ১ লাখ ৬৬ হাজার ৬ শ’ ৮৭টি টিকিট ক্রয় করেছে।
আজ এক তথ্য বিবরণীতে জানানো হয়, ট্রেন যাত্রীরা ইন্টারনেট ও অ্যাপ ব্যবহার করে এসব টিকিট ক্রয় করে।
এতে বলা হয়, যাত্রী সাধারণ নিজের স্মার্টফোনে টিকিট ক্রয় করার ফলে কাউন্টারে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ ভিড় কমেছে। টাইম, কষ্ট ও ভিজিট কমিয়ে রেলওয়ে যাত্রীদের টিকিট প্রাপ্তি সহজ করতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সহযোগিতায় বাংলাদেশ রেলপথ মন্ত্রণালয় রেলওয়ের ওয়ান স্টপ টিকিটিং সার্ভিস ‘রেলসেবা’ নামে এই অ্যাপ চালু করেছে। এবার ঈদে এই অ্যাপটি বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠেছে ।
অতিসম্প্রতি আনুষ্ঠানিকভাবে ‘রেলসেবা’ অ্যাপটি রেলমন্ত্রী মোঃ নূরুল ইসলাম সুজন এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমদ পলক যৌথভাবে উদ্বোধন করেন। এই অ্যাপের মধ্যে টিকিট ক্রয়ের পাশাপাশি ট্রেনের সাধারণ তথ্য, সময়সূচি ও সিটের তথ্য রয়েছে। এছাড়া এসএমএস ভিত্তিক ট্রেন ট্র্যাকিং, ট্রেনে বসে খাবারের অর্ডার দেয়া ও ট্রেনের যাত্রার অভিজ্ঞতার রেটিং দেয়ার সুবিধা রয়েছে।
বাংলাদেশ রেলওয়ের সুত্র থেকে জানা যায়, এ পর্যন্ত প্রায় ২ লক্ষ ৩১ হাজার অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী ও ১০ হাজার ৫১৭ জন আইওএস ব্যবহারকারী টিকিট ক্রয়ের জন্য অ্যাপসটি ডাউনলোড করেছেন।
এছাড়া সরাসরি ই-টিকিট ব্যবহার করে ভ্রমণের সুযোগ থাকায় বাংলাদেশ রেলওয়ের প্রচলিত টিকিট প্রিন্ট করার ঝামেলা না থাকায় যাত্রীরা স্বাচ্ছন্দ্যে ট্রেনে উঠতে পেরেছেন।
এছাড়া, অ্যাপ ব্যবহারের ফলে যাত্রীর মোবাইল ফোন নম্বর, জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বর, বয়স, লিঙ্গ, নাম ও ঠিকানার তথ্য সার্ভারে সংরক্ষিত থাকায় ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে সেটি টিকিটের গায়ে লেখা থাকায় টিকিটগুলি কাউন্টারে বিক্রিত টিকিটের ন্যায় কালো বাজারে বিক্রি করা সম্ভব হয় না। এর ফলে টিকিট কালোবাজারীও ব্যাপকভাবে হ্রাস পায়।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com