June 25, 2019, 9:51 pm

সংবাদ শিরোনাম :
আজ মাইকেল জ্যাকসনের ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী হজের টিকেটে অতিরিক্ত দাম, তিন হ্জ এজেন্সিকে ৩০ লাখ টাকা জরিমানা অসাম্প্রদায়িক মানবতাবাদী শক্তিকে অশুভ সাম্প্রদায়িক শক্তি হুমকি দিয়ে যাচ্ছে:ওবায়দুল কাদের উইকেট শিকারীর তালিকায় শীর্ষ দশের মধ্যে বাংলাদেশেরই তিনজন আগামী ৪ জুলাই থেকে হজ-ফ্লাইট শুরু বিনামূল্যে ২৯৬ কোটি ৭ লাখ ৮৯ হাজার ১৭২ কপি বই বিতরণ করা হয়েছে : শিক্ষামন্ত্রী সড়ক ও রেলপথের সেতুর অবকাঠামো জরিপের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর একনেকে রেলওয়ের আধুনিকায়নসহ ১০ প্রকল্প অনুমোদন যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে উত্তেজনা প্রশমনের পথ রূদ্ধ হয়ে যাচ্ছে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে চীনের সহযোগিতা চাইবে বাংলাদেশ
ইন্টারনেট ও অ্যাপ ব্যবহার করে যাত্রীরা ট্রেনে যাতায়াতের জন্য ১ লাখ ৬৬ হাজার ৬ শ’ ৮৭টি টিকিট ক্রয়

ইন্টারনেট ও অ্যাপ ব্যবহার করে যাত্রীরা ট্রেনে যাতায়াতের জন্য ১ লাখ ৬৬ হাজার ৬ শ’ ৮৭টি টিকিট ক্রয়

এবারের ঈদ উপলক্ষে ইন্টারনেট ও অ্যাপ ব্যবহার করে রেলপথ যাত্রীরা ট্রেনে যাতায়াতের জন্য ১ লাখ ৬৬ হাজার ৬ শ’ ৮৭টি টিকিট ক্রয় করেছে।
আজ এক তথ্য বিবরণীতে জানানো হয়, ট্রেন যাত্রীরা ইন্টারনেট ও অ্যাপ ব্যবহার করে এসব টিকিট ক্রয় করে।
এতে বলা হয়, যাত্রী সাধারণ নিজের স্মার্টফোনে টিকিট ক্রয় করার ফলে কাউন্টারে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ ভিড় কমেছে। টাইম, কষ্ট ও ভিজিট কমিয়ে রেলওয়ে যাত্রীদের টিকিট প্রাপ্তি সহজ করতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সহযোগিতায় বাংলাদেশ রেলপথ মন্ত্রণালয় রেলওয়ের ওয়ান স্টপ টিকিটিং সার্ভিস ‘রেলসেবা’ নামে এই অ্যাপ চালু করেছে। এবার ঈদে এই অ্যাপটি বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠেছে ।
অতিসম্প্রতি আনুষ্ঠানিকভাবে ‘রেলসেবা’ অ্যাপটি রেলমন্ত্রী মোঃ নূরুল ইসলাম সুজন এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমদ পলক যৌথভাবে উদ্বোধন করেন। এই অ্যাপের মধ্যে টিকিট ক্রয়ের পাশাপাশি ট্রেনের সাধারণ তথ্য, সময়সূচি ও সিটের তথ্য রয়েছে। এছাড়া এসএমএস ভিত্তিক ট্রেন ট্র্যাকিং, ট্রেনে বসে খাবারের অর্ডার দেয়া ও ট্রেনের যাত্রার অভিজ্ঞতার রেটিং দেয়ার সুবিধা রয়েছে।
বাংলাদেশ রেলওয়ের সুত্র থেকে জানা যায়, এ পর্যন্ত প্রায় ২ লক্ষ ৩১ হাজার অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী ও ১০ হাজার ৫১৭ জন আইওএস ব্যবহারকারী টিকিট ক্রয়ের জন্য অ্যাপসটি ডাউনলোড করেছেন।
এছাড়া সরাসরি ই-টিকিট ব্যবহার করে ভ্রমণের সুযোগ থাকায় বাংলাদেশ রেলওয়ের প্রচলিত টিকিট প্রিন্ট করার ঝামেলা না থাকায় যাত্রীরা স্বাচ্ছন্দ্যে ট্রেনে উঠতে পেরেছেন।
এছাড়া, অ্যাপ ব্যবহারের ফলে যাত্রীর মোবাইল ফোন নম্বর, জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বর, বয়স, লিঙ্গ, নাম ও ঠিকানার তথ্য সার্ভারে সংরক্ষিত থাকায় ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে সেটি টিকিটের গায়ে লেখা থাকায় টিকিটগুলি কাউন্টারে বিক্রিত টিকিটের ন্যায় কালো বাজারে বিক্রি করা সম্ভব হয় না। এর ফলে টিকিট কালোবাজারীও ব্যাপকভাবে হ্রাস পায়।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com