বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৩:০১ পূর্বাহ্ন

 রুশ প্রেসিডেন্ট খুব শীঘ্র ফের বিয়ে করতে পারেন ভ্লাদিমির পুতিন।

 রুশ প্রেসিডেন্ট খুব শীঘ্র ফের বিয়ে করতে পারেন ভ্লাদিমির পুতিন।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বয়স ৬৬। খুব শীঘ্র ফের বিয়ে করতে পারেন ভ্লাদিমির পুতিন। নিজে মুখেই সে কথা জানালেন রুশ প্রেসিডেন্ট। প্রতি বছরের শেষে দেশের তাবড় সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি এবং আন্তর্জাতিক সম্পর্ক নিয়ে নানা প্রশ্নের উত্তর দেন। বৃহস্পতিবারও তেমনই বৈঠক ডেকেছিলেন। সেখানে উঠে আসে তাঁর ব্যক্তিগত জীবনও। বিবাহ বিচ্ছিন্ন পুতিন দ্বিতীয়বার বিয়ের কথা ভাবছেন কিনা জানতে চান এক সাংবাদিক। জবাবে পুতিন বলেন, ভদ্র-সভ্য মানুষ আমি। কখনও না কখনও বিয়ে তো করতেই হবে।

‘ভদ্র-সভ্য’ মানুষ হওয়ার সঙ্গে বিয়ের কী সম্পর্ক তা নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন নেটিজেনরা। তবে রাশিয়ার নিয়ম-কানুন কিছুটা আলাদা। সেখানকার সমাজ এখনও রক্ষণশীল। সমকামিতা আজও নিষিদ্ধ সে দেশে। শিশুদের সামনে সেই সংক্রান্ত আলোচনাও বেআইনি। বরং তারা চিরন্তন মূল্যবোধে বিশ্বাসী, যেখানে বিয়ে করে সংসারী হওয়াটাই রীতি। এমনকি, চিরন্তন সামাজিক রীতিনীতিগুলিকে যাতে সুরক্ষিত অধিকারের আওতায় আনা যায়, সে জন্য রাষ্ট্রপুঞ্জের মানবাধিকার কমিশনেও সুপারিশ করতে দেখা গিয়েছে রাশিয়াকে।

ভ্লাদিমির পুতিন নিজেও এই মূল্যবোধে বিশ্বাসী। ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বরাবরই গোপনীয়তা বজায় রেখে এসেছেন তিনি। ১৯৮৩ সালে ল্যুদমিলা পুতিনাকে বিয়ে করেন পুতিন। তাঁদের দুই কন্যা রয়েছে, মারিয়া পুতিনা এবং ইয়েক্যাতরিনা পুতিনা। তবে প্রথম থেকেই প্রচারের আলো থেকে দূরে তাঁরা।  রাজনীতির সঙ্গে কোনও যোগ নেই। ২০১৪ সালে  পুতিনের বিবাহ বিচ্ছেদের কথা ঘোষণা করে ক্রেমলিন। তবে বিয়ে ভাঙার কারণ আজও জানা যায়নি।ল্যুদমিলার সঙ্গে বিয়ে ভেঙে যাওয়ার পর আলিনা কাবায়েভা নামের অলিম্পিক্স ফেরত এক জিমন্যাস্টের সঙ্গে নাম জড়ায় পুতিনের। বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় তা নিয়ে বিস্তর লেখালেখি হয়। । ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে প্রশ্ন উঠলেই বরাবরই তা এড়িয়ে যান তিনি। তবে এতদিন পর হঠাত্ বিয়ে করবেন বলায় নতুন করে কৌতূহল শুরু হয়েছে।

 

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com