মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৫:৪৬ অপরাহ্ন

শহীদ মুনীর চৌধুরীর ৯৩ তম জন্মদিন 

শহীদ মুনীর চৌধুরীর ৯৩ তম জন্মদিন 

ভাষা সৈনিক, স্বাধীনতা সংগ্রামী, শিক্ষাবিদ ও লেখক শহীদ মুনীর চৌধুরীর ৯৩ তম জন্মদিন  ২৭ নভেম্বর।
তিনি ১৯২৫ সালের ২৭ নভেম্বর পিতার কর্মস্থল মানিকগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁদের পিতৃভিটা বৃহত্তর নোয়াখালিতে। তার পিতার নাম খান বাহাদুর আবদুল হালিম চৌধুুরী, মাতা উম্মে কবীর আফিয়া। জাতির এই কৃতি সন্তান মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ১৯৭১ সালের ১৪ ডিসেম্বর শহীদ হন।
মুনীর চৌধুরী একাধারে লেখক, শিক্ষক, ভাষা সৈনিক, সংস্কৃতি সংগ্রামী ও রাজনীতিক। ১৯৪১ সালে ঢাকা কলেজিয়েট স্কুল থেকে এসএসসি পাস করেন। পরবর্তীতে আলীগড় বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করেন। ১৯৪৭ সালে কারাগারে বন্দি অবস্থায় পরীক্ষা দিয়ে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডকোত্তর ডিগ্রী লাভ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নকালে বাম রাজনীতি করার অভিযোগে তাকে সলিমুল্লাহ মুসলিম হল থেকে বহিস্কার করা হয়।

তিনি ১৯৪৭ সালে খুলনার একটি কলেজে শিক্ষক হিসেবে যোগদানের মধ্যদিয়ে শিক্ষক জীবন শুরু করেন। এরপর জগন্নাথ কলেজ এবং পরে (১৯৫০ সালে) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক হিসেবে যোগ দেন। পরবর্তীতে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভাষাতত্ত্বে মাস্টার্স ডিগ্রি লাভ করেন।
তিনি ১৯৭০ সালে ঢাবিতে অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন। মুক্তিযুুদ্ধের সময় তিনি ঢাবিতে কর্মরত ছিলেন।
মুনীর চৌধুরী ১৯৫২ সালে ভাষা আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেন এবং গ্রেফতার হয়ে দুই বছর জেলে বন্দি ছিলেন (১৯৫২-৫৪)। জেলখানায় তিনি ‘কবর’ নাটক রচনা করেন। তিনি ছিলেন ‘প্রগতি লেখক ও শিল্পী সংঘ’র প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক (১৯৫২)। ষাট দশকের প্রথম দিকে পাকিস্তান সরকার বেতার-টিভিতে রবীন্দ্র সংগীত নিষিদ্ধ করলে যে প্রতিবাদী আন্দোলন শুরু হয়, মুনীর চৌধুরী তাতে সক্রিয় অংশগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৭০ ও একাত্তর সালে অসহযোগ আন্দোলনে যোগদান করেন।
মুনীর চৌধুরী রচিত অন্যান্য গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে চিঠি (১৯৬৬),পলাশী ব্যারাক ও অন্যান্য ( ১৯৬৯ )। তার অন্যতম ও অনন্য সৃষ্টির মধ্যে রয়েছে বাংলা টাইপরাইটার কি-বোর্ড ‘ মুনীর অপটিমা টাইপরাইটার কি-বোর্ড ’।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com