শুক্রবার, ১৬ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৫৭ অপরাহ্ন

মুন্সীগঞ্জে দু-পক্ষের টেটাযুদ্ধে ২৪ জন আহত ।

মুন্সীগঞ্জে দু-পক্ষের টেটাযুদ্ধে ২৪ জন আহত ।

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দু-পক্ষের ‘টেটাযুদ্ধে’ নয়জন টেটা বিদ্ধসহ অন্তত ২৪ জন আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার উপজেলার বালুচরে কয়েকটি গ্রামের দু’পক্ষের এ সংর্ষের ঘটনার সময় বেশ কিছু বাড়ি ঘরও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।

পরিস্থিতি মোকাবেলায় ওই এলাকায় পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে এবং টেটাবিদ্ধ নয়জনকে গুরুতর আহতাবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

টেটাবিদ্ধরা হলেন- মিলন (৩০), আসাদ মোল্লা (৪৫), জামাল মোল্লা (৫০), মাসুম (৪০), খোকন সরকার (৪৫), আক্তার মুন্সী (২৮), জাকারিয়া (২২), আক্তার মোল্লা (২৮), মজিবর মুন্সী (৫৫) ও মোক্তার হোসেন।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে নুরু বাউল ও নাছির মোল্লা গ্রুপের মধ্যে বিরোধ চলছিল। এর আগে এই বিরোধের জের ধরে গত ২০ আগস্ট নাসির মোল্লা গ্রুপের তকবির মোল্লা নামে এক সমর্থক টেটা বিদ্ধ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এ ঘটনায় সেই সময় আওলাদ মোল্লা বাদী হয়ে ৬০ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করে। হত্যা মামলার ৩৪ জন আসামী গ্রেফতার হলেও গত ১৯ অক্টোবর ২৭ জন আসামী জামিন পেয়ে যান। ওই দিন সন্ধ্যায় তারা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে এলাকায় মহড়া দেয়।

দু’দিন উত্তেনাজনার পর বৃহস্পতিবার সকালে টেটাযুদ্ধে শুরু হলে দুগ্রুপের নয় জন টেটাবিদ্ধসহ ২৪ জন আহত হয়। এ সময় নাছির গ্রুপের বেশ কিছু বাড়ি ঘর ভাঙচুর করা হয়।

খবর পেয়ে সিরাজদিখান থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় শ্রীনগর ও টঙ্গীবাড়ি থানা পুলিশের সাহায্য নেন তারা।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে সিরাজদিখান সার্কেল সিনিয়র এএসপি আসাদুজ্জামান জানান, সিরাজদিখান, শ্রীনগর ও টঙ্গীবাড়ি থানার পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন আছে এবং দুই জনকে আটক করা হয়েছে।

এ সমস্যা তাদের ওই এলকার পূর্ব পুরুষদের সময় থেকে চলছে বলেও জানান তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com