বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১১:২৩ অপরাহ্ন

ইয়েমেনের জনগণ শান্তি চায়।

ইয়েমেনের জনগণ শান্তি চায়।

ইয়েমেনের বিদ্রোহী দখলকৃত সানা ও রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত এডেনের বাসিন্দারা একটি ব্যাপারে একমত। তারা সবাই শান্তি চায়। চার বছর ধরে চলা গৃহযুদ্ধ দেশটিতে চরম মানবিক বিপর্যয় ডেকে এনেছে। তবে ইয়েমেনের জনগণ কিভাবে এ শান্তির দেখা পাবে তার কোনো সন্ধান এখনো মেলেনি। বহু মানুষকে বাস করতে হচ্ছে উদ্বাস্তু শিবিরে।

অনুন্নত দেশটির বাসিন্দারা প্রায় প্রতিদিনই প্রতিপক্ষ বিরোধী প্রপাগাণ্ডা ও উত্তেজনা সৃষ্টিকারী বক্তব্য-বক্তৃতা শুনছে। এই ধরনের বক্তব্য দিয়ে যুদ্ধরত দলগুলো তাদের সমর্থক সাধারণ মানুষকে ‘শত্রুদের বিরুদ্ধে’ লড়াইয়ে উদ্ভুদ্ধ করছে। ইয়েমেনের সর্বত্রই যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়েছে। সশস্ত্র যোদ্ধারা সামরিক পোশাক পরে সরু অলিগলি থেকে শুরু করে বাজারের দেয়ালগুলোতে ‘শহীদ’ যোদ্ধাদের পোস্টার সেঁটে দিচ্ছে। কিন্তু অনেক ইয়েমেনী মনে করেন যথেষ্ট হয়েছে। আর যুদ্ধ নয়।

ইরান সমর্থিত হুতি বিদ্রোহী আর সৌদি সমর্থিত সরকারের মধ্যে এই গৃহযুদ্ধ চলছে। সাধারণ নাগরিক যে দলের পক্ষেই থাকুক, এ যুদ্ধ আরব বিশ্বের দরিদ্র জনগোষ্ঠীটিকে দুর্ভিক্ষের দ্বারপ্রান্তে এনে দাঁড় করিয়েছে। সানার বাব আল-সাবাহ মার্কেটের দোকানি আমিন মোহাম্মদ বলেন, ‘যুদ্ধে কোন ক্ষমা নেই । এটা সবকিছু গ্রাস করে নেয়। তিনি আরো বলেন, ‘প্রতিদিনই ইয়েমেনিরা যুদ্ধ বন্ধের ঘোষণা শুনার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে।’ রাজধানীর বাজারগুলোতে মোহাম্মদের মতো দোকানীরা দোকান খুলে খদ্দেরের আশায় বসে থাকেন। ক্রেতা বিক্রেতা উভয়েই জীবনযাত্রা স্বাভাবিক করতে চান।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com