বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:২৯ পূর্বাহ্ন

লক্ষ্মীপুরে ধর্ষণের মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ:গ্রামবাসীর ক্ষোভ!

লক্ষ্মীপুরে ধর্ষণের মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ:গ্রামবাসীর ক্ষোভ!

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধিঃ লক্ষ্মীপুরে ধর্ষণের মামলা দিয়ে হয়রানীর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডস্থ রেনুমিয়া বেপারীর বাড়ীর দুলালের মেয়ে
মীম আক্তারকে ধর্ষণের অভিযোগে পেঁয়াজের বেপারী বাড়ীর আনোয়ার হোসেনের ছেলে ফারুক(১৮),হাবিব উল্যা ওরফে তসলিমের পুত্র রনি (১৭) ও মৃত নূরুল হক ওরফে শারীরীক প্রতিবন্ধী বাবুলের পুত্র ফরহাদ নামের ৩ কিশোর ছেলেকে আসামী করে সদর থানায় ধর্ষণের মামলা করা হয়।সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লোকমান হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
এদিকে ধর্ষণ মামলার আসামীদের বিষয়ে খোঁজখবর নিতে গিয়ে বেরিয়ে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। রিক্সাচালক দুলাল মূলত দিনমুজুর হলেও তার ৩ মেয়ে সেলিনা, রুনা ও মীম সুন্দরী এবং উচ্চাবিলাসী হওয়ার দরুন তারা আধুনিক জীবন-যাপন করে।এতে করে বহু দূর দূরান্ত থেকে মোটরসাইকেল যোগে বিভিন্ন বয়সের ছেলেরা তাদের ঘরে আসা যাওয়া করে। এলাকার লোকজন তাদের পরিচয় জানতে চাইলে সেলিনার মা মনরী বেগম তার আত্মীয় বলে পরিচয় দিয়ে তাদের পথ সুগম করে দেয়।এতে ছেলেদের আসা যাওয়া আরো বেড়ে যায়।
এ বিষয়ে একই বাড়ীর বীরমুক্তিযোদ্ধা সাহাবুদ্দীন বলেন -প্রতিদিন দু’একটা মোটরসাইকেল দুলালের ঘরের সামনে দাঁড়ানো থাকতোই। আমি কয়েকবার তাদের সতর্ক করেছি, একদিন তাদের মেয়ে সেলিনার সাথে ধরা পড়েছে একটা ছেলে, পরে সে ছেলের সাথে বিয়ে দিয়েছে। ওই ছেলেটার বাড়ী নোয়াখালী।মেঝো মেয়েটাকেও একইভাবে বিয়ে হয়েছে বলে তিনি জানান।বিষয়টা স্বীকার করে খোদ মীমের খালু পাশের ঘরের সফিক উল্লাহ বক্তব্য দিয়ে বলেন ছেলেগুলো একবারেই সাধাসিধে,ভালো ছেলে। তারা কোনো আড্ডাধারী নয়।
একই কথা আবুল কালাম, শফি উল্লাহ,এলাকাবাসীর মধ্যে ওয়াহেদ আলী পাটওয়ারী, রুহুল আমিন, সলেমান, নিজাম উদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা সাহাব উদ্দিন, মীমের খালু সফিক উল্যাহ, আবুল কালাম-১, সফিউল্যাহ, মজিবুল হক, আবদুল হাই, আবুল কালাম-২, মহিউদ্দিন, আবুল কলাম-৩, জুয়েল, তাজকেরা, হনুফা বেগম, পারুল বেগম, সুমিসহ শতাধিক নারী-পুরুষ বলেন।
তারা আরো বলেন -দুলালের বাড়ী এখানে নয়, তারা দক্ষিনে হাওলাদার বাড়ী থেকে উঠে এসেছে। আজ ২০বছর পর্যন্তই এ এলাকাকে জ্বালাচ্ছে। কেউ যদি প্রতিবাদ করে তাহলে তাকে মেয়ে দিয়ে হেনস্থা করে।
স্থানীয় সাবেক কমিশনার বলেন -যে ছেলেদের আসামী করে ধর্ষণ মামলা দিয়েছে সে ছেলেগুলো এ এলাকায় আছে বলেও তো কেউ জানে না। তারা অত্যন্ত ভদ্র। এ মামলা ষড়যন্ত্র বলে আমি মনে করি। ছেলেগুলো এতো অশান্ত বলে আমার মনে হয় না।
দুলালের পাশের ঘরের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক মহিলা বলেন। -যদি কোনো ঘটনা হতো তাহলে তো আমরা শুনতাম। আমরা তো কিছুই শুনিনি।তারা বিভিন্ন ছেলেদের ঘরে আড্ডা বসিয়ে পরে বিয়ের নামে কাধে চড়ে বলে তারা জানান।
এবিষয়ে ভুক্তভোগী মীম ও তার পরিবারের বক্তব্য নিতে একাধিকবার তাদের বাড়ীতে গেলেও তারা কোনো বক্তব্য দিতে রাজী হননি।
বর্তমান ওয়ার্ড কমিশনার রিয়াজুল হাসান টিপু বলেন -আমি বিষয়টি শুনেছি, তবে ঘটনা আদৌ সত্য কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কারন অতীতেও মেয়েগুলোর নানা খারাপ রেকর্ড শুনেছি।
নিরীহ ৩ দিনমুজুরকে ধর্ষণ মামলা দিয়ে হয়রানি করার প্রতিবাদে এলাকায়জুড়ে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com