বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৮:২১ পূর্বাহ্ন

উত্তরায় ভুয়া ডিবি পুলিশ সেজে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৭ জনগ্রেফতার

উত্তরায় ভুয়া ডিবি পুলিশ সেজে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৭ জনগ্রেফতার

রাজধানীর উত্তরায় ভুয়া ডিবি পুলিশ সেজে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ’র গোয়েন্দা  বিভাগ (ডিবি)।

গ্রেফতারকৃতরা হলো-মোঃ আরিফ হোসেন (৩৪), মোঃ আব্দুল আলী ফকির ওরফে লালা (৪৮), মোঃ সানোয়ার হোসেন ওরফে সজিব (২৭), মোঃ স্বপন মিয়া (২৮), মোঃ অপু (২৮), মোঃ সবুজ হোসেন (২৮) ও মোঃ সবুজ মৃধা ওরফে রাহাত (২৬)।

গ্রেফতারের সময় তাদের হেফাজত থেকে ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত ০১টি মাইক্রোবাস, ০১টি পিস্তল, ০১ রাউন্ড গুলি, ০১ জোড়া হ্যান্ডকাফ ও ওয়্যারলেস সেট উদ্ধার করা হয়।

০৪ নভেম্বর’১৮ রাত পৌনে তিনটার দিকে উত্তরা-পশ্চিম থানার ১১নং সেক্টরের গরীবে নেওয়াজ এভিনিউ এলাকা হতে তাদেরকে গ্রেফতার করে ডিবি-উত্তর বিভাগের গাড়ি চুরি প্রতিরোধ ও উদ্ধার টিম।

ডিবি সূত্রে জানা যায়,  এই ডাকাত গ্রুপের নেতৃত্ব দিতেন ০১নং আসামী মোঃ আরিফ হোসেন। তারা আরিফের নেতৃত্বে মাইক্রোবাস ব্যবহার করে বিভিন্ন সময় ঢাকা মহানগরসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে যাত্রী উঠিয়ে নির্জন স্থানে নিয়ে যেত এবং ডিবি’র পরিচয় দিয়ে তাদের সাথে থাকা অস্ত্র-গুলি, ওয়্যারলেস সেট ও হ্যান্ডকাফের মাধ্যমে ভয়ভীতি দেখিয়ে সাধারণ যাত্রীদের নিকট থেকে ডাকাতি/ছিনতাই করত।

ডিবি সূত্রে আরো জানা যায়,  তারা প্রথমে ব্যবসায়ী অথবা সম্ভ্রান্ত কোন যাত্রীকে টার্গেট করে। যখন কোন ব্যক্তি ব্যাংক বা বুথ থেকে টাকা উত্তোলন করে। তখন তাদের একজন ঐ  ব্যক্তিকে নজরদারিতে রাখে। অপর সদস্যরা কৌশলে তাকে মাইক্রোবাসে তোলে। পরবর্তী সময়ে নির্জন কোন জায়গায় তাকে নিয়ে যায়। যাত্রীকে গাড়িতে তুলে যাত্রীর চোখ/মুখ গামছা দিয়ে বেঁধে ফেলে। তারপর শারীরিক নির্যাতন করে সঙ্গে থাকা টাকা, মোবাইলসহ মূল্যবান জিনিসপত্র ডাকাতি করে নিয়ে যায়। সাধারণত ঢাকা মহানগরী ও তার আশপাশের এলাকা যেমন গাজীপুর, সাভার, কুমিল্লা যেখানে হাইওয়ে রাস্তা আছে সেইসব জায়গায় ব্যাংক ও বুথগুলো তাদের টার্গেটে থাকে। যাতে তারা অপরাধ করে পালিয়ে যাবার সুযোগ পায়।

অভিযানকালে গ্রেফতারকৃত আরিফ পিস্তল দিয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করার চেষ্টাকালে দুইজন পুলিশ সদস্য আহত হয়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুঁড়লে আরিফ হোসেন ও সানোয়ার হোসেন আহত হয়।

আরিফ হোসেন ও সানোয়ার হোসেনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়। আহত পুলিশ সদস্যদেরকে রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়।

এ সংক্রান্তে  তাদের বিরুদ্ধে উত্তরা পশ্চিম থানায় পৃথক দুটি  মামলা রুজু হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com