মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৯:০১ অপরাহ্ন

বর্জ্য থেকে বায়োগ্যাস উৎপাদন ও জৈবসার প্রস্তুত করা হবে: ইঞ্জিনিয়ার মোশররফ হোসেন

বর্জ্য থেকে বায়োগ্যাস উৎপাদন ও জৈবসার প্রস্তুত করা হবে: ইঞ্জিনিয়ার মোশররফ হোসেন

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) ও জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের আবাসন পরিকল্পনায় বর্জ্য ব্যবস্থাপনাকে অন্তর্ভুক্ত করে কঠিন বর্জ্য থেকে বায়োগ্যাস উৎপাদন ও জৈবসার প্রস্তুত করা হবে।
আজ বিশ্ব বসতি দিবস উপলক্ষে ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশররফ হোসেন প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।
নগরাঞ্চলের বর্জ্যকে সম্পদ হিসেবে পরিনত করা সম্ভব এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনার প্রধান কাজ সিটি করপোরেশন ও পৌরসভার। অথচ পৌরসভা ও সিটি করপোরেশনগুলো অত্যন্ত অবৈজ্ঞানিক উপায়ে রাস্তার পাশে মূল্যবান বর্জ্যপদার্থগুলো ফেলে রাখে। তাই আধুনিক নগর পরিকল্পনায় বর্জ্য ব্যবস্থাপনাকে অন্তর্ভুক্ত করে পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হচ্ছে।
গণপূর্ত মন্ত্রী বলেন,জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের মিরপুরে স্বপ্ননগর আবাসিক প্রকল্পে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য স্যুয়োরেজ ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট স্থাপনসহ বড় একটি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। এখানে বাসাবাড়ির কঠিন বর্জ্য পৃথক করে তা থেকে বায়োগ্যাস উৎপাদন করা হবে এবং অবশিষ্টাংশ থেকে জৈব সার উৎপাদন করা হবে। উত্তরা এপার্টমেন্ট প্রকল্প, ঝিলমিল এপার্টমেন্ট প্রকল্প ও পূর্বাচলেও অনুরূপ প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।
তিনি বলেন, বর্জ্যপদার্থ সংক্ষণের বিষয়ে জনগণকে সচেতন করে তুলতে হবে। একইসাথে পরিচ্ছন্ন নগরী গড়ে তুলতে হলেও সকলের সচেতনতা প্রয়োজন।সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে রাজনৈতিক দলগুলোর সমাবেশকালে পলিথিন, কাগজসহ বিভিন্ন বর্জ্যপদার্থ ফেলে নোংরা করে ফেলা হয়।
তিনি বলেন, ভবিষ্যতে সমাবেশ করতে হলে অগ্রিম জামানত দিতে হবে। সে টাকা দিয়ে উদ্যান পরিচ্ছন্ন করা হবে।
মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শহীদ উল্লা খন্দকারের সভাপতিত্বে আলোচনায় গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য মো. দবিরুল ইসলাম, ইউএনডিপি’র কান্ট্রি ডিরেক্টর সুদীপ্ত মুখার্জি, গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম, স্থাপত্য অধিদপ্তরের প্রধান স্থপতি কাজী গোলাম নাসির, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মো. আব্দুর রহমান, জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মো. রাশিদুল ইসলাম ও মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. আখতার হোসেন বক্তৃতা করেন।
অনুষ্ঠানে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন পল্লী উন্নয়ন একাডেমি,বগুড়া’র মহাপরিচালক ড. এম এ মতিন।
এর আগে বিশ্ব বসতি দিবস পালন উপলক্ষে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এর নেতৃত্বে এক শোভাযাত্রা বের করা হয়।শোভাযাত্রাটি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে শুরু হয়ে দোয়েল চত্ত্বর, কদম ফোয়ারা হয়ে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এসে শেষ হয়।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com