বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০২:৩২ অপরাহ্ন

রামগঞ্জে ধর্ষিতার পরিবারের বিরুদ্ধে লুটপাটের মামলা

রামগঞ্জে ধর্ষিতার পরিবারের বিরুদ্ধে লুটপাটের মামলা

অ আ আবীর আকাশ,লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি :
লক্ষ্মীপুর রামগঞ্জে নিজের মেয়েকে ধর্ষন শেষে হত্যার বিচারের কোন কুল কিনারা না হতেই এবার উল্টো লুটপাটের মামলার আসামী হলেন ধর্ষিতার পিতা মোঃ এরশাদ হোসেন। গত ১লা আগষ্ট ঘাতক রুবেলের পিতা সিরাজুল ইসলাম লুটপাটকৃত ১৫লক্ষ টাকার ক্ষতিপুরনের দাবিতে নিহত নুশরাতের পিতা মোঃ এরশাদ হোসেনকে প্রধান আসামী করে ১৪ জনের বিরুদ্ধে লক্ষ্মীপুর জুডিসিয়াল আমলী ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে সিআর ২১৯/১৮ মামলা করেন।
পরে সেই মোতাবেক রামগঞ্জ থানার ওসিকে আগামী ২৫ সেপ্টম্বরের মধ্যে তদন্ত করে রিপোর্ট দেওয়ার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন। তারই আলোকে রামগঞ্জ থানার এসআই মোঃ তাজুল ইসলাম ঘটনাস্থ পরিদর্শন করেন। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে নুশরাতের পরিবারের মধ্যে আহাজারি চরম আকার ধারন করে। মেয়ে হারানোর শোক সেরে না উঠতেই এভাবে উল্টো মিথ্যে মামলার আসামী হওয়ার খবরে উপজেলাব্যাপী সকল শ্রেনী-পেশার লোকজনের মাঝে চরম ক্ষোভ ও মিথ্যে মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান। মেয়েকে হারিয়ে রাত-দিন শুধু আহাজারি করছেন। আত্বীয়-স্বজন এলাকাবাসী শত চেষ্টা করেও মা রেহানা বেগম ও বাবা এরশাদ হোসেনকে শান্তনা দিলে মেয়েকে হারিয়ে এখন পাগলপ্রায় হয়ে পড়েছে।
লুটপাট মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই তাজুল ইসলাম জানান, লক্ষ্মীপুর কোটে একটা মামলা হয়েছে। ওই মামলার এজহারের কপি হাতে পেয়ে তদন্তের জন্য আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।
লক্ষ্মীপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ শাহাদাত হোসেন শরীফ জানান, নুশরাত হত্যার পর থেকে জেলা উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ নুশরাতের পরিবারের পাশে থেকে শোকাহত পরিবারকে শান্তনা দিয়েছি। আর নুশরাতের বাবা-মা ও আত্মীয়-স্বজনের বিরুদ্ধে লুটপাটের মামলা করায় আমি তীব্র নিন্দা এবং অবিলম্বে মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি।
রামগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা আকম রুহুল আমিন জানান, ধর্ষন শেষে শিশু নুশরাতকে হত্যা করা হয়েছে। এটা দেশব্যাপী আলোচিত বিষয়। উত্তেজিত লোকজনরাই ঘটনার দিন ধর্ষক রুবেলের বাড়িঘর ভাংচুর করেছে। আর যেহেতু বিষয়টি বিচারাধীন সেখানে নুশরাতের বাবার বিরুদ্ধে লুটপাটের মামলা অত্যান্ত দুঃখজনক।
উল্লেখ্য, চলতি বছরের ২৩ মার্চ শুক্রবার দুপুরে রামগঞ্জ উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের নোয়াগাঁও নজুমুদ্দিন বাড়ীর (কালু মেস্তুরির বাড়ীর) প্রবাসী এরশাদ হোসেনের মেয়ে ও স্থানীয় পশ্চিম নোয়াগাঁও ফয়েজুল রাসূল সুন্নিয়া মাদ্রাসার তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী নুশরাত জাহান (৭) বাড়ী থেকে নিখোঁজ হয়।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com