মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০২:৫৯ অপরাহ্ন

সাংবাদিকরা দেশের শত্রু নন, একযোগে ট্রাম্পকে তোপ তিনশো মার্কিন সংবাদপত্রের

সাংবাদিকরা দেশের শত্রু নন, একযোগে ট্রাম্পকে তোপ তিনশো মার্কিন সংবাদপত্রের

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নজিরবিহীন অবস্থান নিল মার্কিন সংবাদমাধ্যম। বৃহস্পতিবার সারা দেশের তিনশো’টিরও বেশি সংবাদপত্র একযোগে প্রকাশ করল ট্রাম্পবিরোধী সম্পাদকীয় প্রবন্ধ। শুধু আমেরিকা নয়, মার্কিন সংবাদমাধ্যমের পাশে দাঁড়িয়েছে ‘গার্ডিয়ান’ সহ একাধিক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমও।

বরাবরই সমালোচনা সহ্য করতে পারেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সমালোচনা হলেই তাঁর রোষ গিয়ে পড়ে সংবাদমাধ্যমের ওপর। মাঝে মন্তব্য করেছিলেন, ‘সাংবাদিকরা সমাজের শত্রু’। এই মাসের শুরুতেই আবার সাংবাদিকদের ‘অসুস্থ ও ভয়ঙ্কর’ বলে দাগিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। জুলাই মাসেও প্রকাশ্যে ‘দ্য নিউইয়র্ক টাইমস’ ও ‘দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট’ পত্রিকার বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগ এনেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ক্ষমতায় আসার পর থেকে সংবাদমাধ্যমকে আক্রমণ করতে বরাবরই অতিরিক্ত তৎপর মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

এর পরই ‘দ্য বস্টন গ্লোব’ পত্রিকার নেতৃত্বে একজোট হয় মার্কিন সংবাদমাধ্যম। মুক্ত সংবাদমাধ্যমের ওপর বল্গাহীন আক্রমণের প্রতিবাদে একযোগে ট্রাম্পবিরোধী সম্পাদকীয় লেখার সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা। তিনশোরও বেশি, অর্থাৎ দেশের প্রায় সবকটি প্রথম সারির সংবাদপত্রই সেই প্রতিবাদের অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার একসঙ্গে ট্রাম্পবিরোধী সম্পাদকীয় প্রকাশ করেছে। বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে একটি নতুন সমীক্ষাও। সেখানে দেখা যাচ্ছে ট্রাম্পের দল রিপাবলিকান পার্টির ৪৮ শতাংশ সমর্থকই মনে করেন, সংবাদমাধ্যম সমাজের শত্রু। সংবাদমাধ্যম বিরোধী এই ঘৃণা ছড়ানোর দায় মার্কিন প্রেসিডেন্টের। নিজেদের সম্পাদকীয়কে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়েছে ‘দ্য বস্টন গ্লোব’।

নিউইয়র্ক টাইমস-র বক্তব্য, ‘সংবাদমাধ্যমকে সমাজের শত্রু বলা একটি ভয়ঙ্কর প্রবণতা। মার্কিন প্রেসিডেন্টের নিজেকে সংযত করা উচিত।

যদিও সংবাদমাধ্যমের এই নজিরবিহীন প্রতিবাদের পরও অনড় ডোনাল্ড ট্রাম্প। বৃহস্পতিবার সকালটা তিনি শুরু করলেন স্বভাবসিদ্ধ টুইট করেই। যেখানে বললেন, ‘ভুয়ো খবর ছাপানো সংবাদমাধ্যমই এখন দেশের বিরোধী শক্তি’।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com