বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৫:১৪ অপরাহ্ন

বিশ্বে বসবাসের অযোগ্য শহরের তালিকায় ঢাকা দ্বিতীয়

বিশ্বে বসবাসের অযোগ্য শহরের তালিকায় ঢাকা দ্বিতীয়

বিশ্বে বসবাসের অযোগ্য শহরগুলোর তালিকায় ঢাকা এখন দ্বিতীয়। লন্ডনভিত্তিক ইকোনোমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের বার্ষিক জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। র‌্যাংকিং নির্ধারণের ক্ষেত্রে কোন শহরের রাজনৈতিক ও সামাজিক স্থিতিশীলতা, অপরাধ প্রবণতা, শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবার সুযোগ বিবেচনা করা হয়। সে অনুযায়ী বিশ্বের সবচেয়ে বসবাসের উপযোগী শহর হলো অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনা। পূর্বে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন বাসযোগ্য শহরের তালিকায় শীর্ষে ছিল। এবারই প্রথমবারের মতো ইউরোপের কোন শহর বাসযোগ্য শহরের তালিকায় শীর্ষ স্থান দখল করলো।

ইকোনোমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট বিশ্বের ১৪০টি শহরের ওপর জরিপ চালিয়েছে। জরিপ অনুযায়ী বিশ্বের বাসযোগ্য শহরগুলোর মধ্যে প্রথম দশটি হলো যথাক্রমে- অস্ট্রিয়ার ভিয়েনা, অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন, জাপানের ওসাকা, কানাডার ক্যালগেরি, অস্ট্রেলিয়ার সিডনি, কানাডার ভ্যাঙ্কুভার, জাপানের টোকিও, কানাডার টরোন্টো, ডেনমার্কের কোপেনহেগেন ও অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেড।

বিপরীতে বিশ্বের সবচেয়ে বসবাসের অযোগ্য শহরগুলোর প্রথমে রয়েছে সিরিয়ার দামেস্ক। তালিকার পরবর্তী শহরগুলো হলো, বাংলাদেশের ঢাকা, নাইজেরিয়ার লাগোস, পাকিস্তানের করাচি, পাপুয়া নিউগিনির পোর্ট মরিসবি। ইকোনোমিস্ট জানিয়েছে, বসবাসের অযোগ্য শহরগুলোর মধ্যে র‌্যাংকিং করার ক্ষেত্রে অপরাধ, নাগরিক অস্থিরতা, সন্ত্রাস বা যুদ্ধ প্রধান ভূমিকা পালন করেছে।

নগর নিয়ে কাজ করেন বাংলাদেশের স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন। তিনি বললেন, আইনের শাসন যেখানে অনুপস্থিত সেখানে ঢাকার অবস্থান এমনটাই হবে। সাম্প্রতিক ছাত্র আন্দোলনের প্রসঙ্গ টেনে মোবাশ্বের বলেন, তারা কিভাবে শহরে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনলো। কারণ তারা কাউকে ছাড় দেয়নি।

মোবাশ্বের হোসেন বলেন, ‘সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণ করলে ৬ মাসের মধ্যে এর যুগান্তকারী পরিবর্তন সম্ভব। পশ্চিমবঙ্গ পারলে আমরা কেন পারবো না’। তিনি বলেন, ‘পরিকল্পনা যেখানে অসম্পূর্ণ সেখানে কি করে আমরা আশা করি অযোগ্য শহরের তকমা থেকে রেহাই পাবো’।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com