বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ১২:৩৬ অপরাহ্ন

গলাচিপায় শিশু ধর্ষণ চেষ্টায় মাদরাসা শিক্ষক গ্রেফতার, থানায় মামলা

গলাচিপায় শিশু ধর্ষণ চেষ্টায় মাদরাসা শিক্ষক গ্রেফতার, থানায় মামলা

রিয়াদ হোসাইন, গলাচিপা প্রতিনিধি (পটুয়াখালী) : তৃতীয় শ্রেণির এক শিশু ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে গলাচিপা থানার পুলিশ মাদরাসা শিক্ষক মোঃ খলিলুর রহমান মৃধা ওরফে খলিল মাস্টারকে পৌর শহরের ভাড়া বাসা গ্রেফতার করেছে। এ ঘটনায় ওই শিশু ছাত্রীর মা বাদী হয়ে গলাচিপা থানায় খলিল মাস্টারকে একমাত্র আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন।

খলিল মাস্টার (৫০) উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের নলুয়াবাগী গ্রামের মৃত মতলেব মৃধার ছেলে এবং উত্তর মাছুয়াখালী হানিফি দাখিল মাদরাসার সামাজিক বিজ্ঞানের শিক্ষক।

গলাচিপা উপজেলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আজ মঙ্গলবার ওই শিশুটির ফৌজদারী আইনের ২২ ধারায় জবানবন্দী গ্রহণ করেছেন। পুলিশ আদালতের মাধ্যমে গ্রেফতার শিক্ষককে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

মামলার বিবরণসহ অন্যান্য সূত্রে জানা গেছে, ১০ বছর বয়সী ওই শিশু ছাত্রী সমবয়সী চারজন সহপাঠির সঙ্গে অন্যান্য দিনের মতো গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় পৌর শহরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের খলিল মাস্টারের ভাড়াটে বাসায় প্রাইভেট পড়তে যায়। প্রাইভেট পড়ানো শেষে খলিল মাস্টার চার সহপাঠিকে পাশের কক্ষে ঘুমানোর জন্য রেখে বাইরে থেকে দরজা আটকে দেয়। সামনের কক্ষে খলিল মাস্টার ওই শিশুটিকে একা রেখে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় শিশুটি ডাকচিৎকার দিলে পাশের কক্ষ থেকে সহপাঠিরাও সমানে চিৎকার করে।

অবস্থা বেগতিক বুঝতে পেরে খলিল মাস্টার পাশের কক্ষের ছাত্রীদের ছেড়ে দেয়। ছাত্রীরা বাইরে এসে আবারও ডাকচিৎকার দিলে অভিভাবকসহ পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে আসে এবং পুলিশ খলিল মাস্টারকে গ্রেফতার করে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই জাকারিয়া জাকির জানান, প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। ঘটনার সময়ে খলিল মাস্টারের স্ত্রীসহ পরিবারের কেউ বাসায় ছিল না। তারা অন্যত্র বেড়াতে গিয়েছে। এ সুযোগে খালি বাসায় খলিল মাস্টার ধর্ষণ চেষ্টা করেছে। আদালতে শিশুটি জবানবন্দী দিয়েছে। আসামিকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2017 Asiansangbad.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com