শিরোনাম :
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সংশোধনের তাগিদ দিয়েছেন গণমাধ্যমের প্রতিনিধিরা কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ঝিনাইদহ ১নং সাধূুুুহাটি ইউনিয়নে ২০১৮-২০১৯ সালের উম্মক্ত বাজেট ঘোষনা চুয়াডাঙ্গায় পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত লক্ষ্মীপুরে মাদক ব্যবাসয়ী গ্রেফতার লক্ষ্মীপুর কারাগারে আসামির মৃত্যু পঞ্চগড়ে চলতি মৌসুমে লিচু চাষিদের মুখে হাসি ফুটেছে মাদক বিরোধী অভিযান প্রশংসিত হলেও বিএনপির তা ভালো লাগছে না : ওবায়দুল কাদের। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ নাজিমের পরিবারকে কেন কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ নয়- হাইকোর্ট

আনন ফাউন্ডেশনের ষষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠিত হলো

আনন ফাউন্ডেশনের ষষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ১২ মে ২০১৮ শনিবার বিকেলে বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি স.ম. শামসুল আলমের সভাপতিত্বে একটি আনন্দঘন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক যুগান্তর এর ফিচার সম্পাদক বিশিষ্ট শিশুসাহিত্যিক ও শিশুসংগঠক রফিকুল হক দাদুভাই। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য প্রদান করেন শিশুসাহিত্যিক আলী ইমাম, ছড়াকার সিরাজুল ফরিদ, কবি ও সংগীত শিল্পী বুলবুল মহলানবীশ এবং শিশুসাহিত্যিক জাহাঙ্গীর আলম জাহান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ফাউন্ডেশনের মহাসচিব নজরুল ইসলাম নঈম। শিশু প্রতিনিধির বক্তব্য রাখে সুখি আক্তার সাথী। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন শামাদান উফা ও আশা আলমগীর। এর আগে দোয়েল চত্বর থেকে বাংলা একাডেমি পর্যন্ত আনন্দ শোভাযাত্রা করে আনন ফাউন্ডেশনের শিশু-কিশোর এবং সদস্যবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে শিশুসাহিত্যিক কাইজার চৌধুরীকে আনন শিশুসাহিত্য পুরস্কার ২০১৮ প্রদান করা হয়। প্রধান অতিথি শিশুসাহিত্যিক রফিকুল হক দাদুভাই পুরস্কারপ্রাপ্ত কাইজার চৌধুরীকে উত্তরীয় পরিয়ে দিয়ে তাঁর হাতে তুলে দেন এককালীন নগদ এক লাখ টাকা, ক্রেস্ট ও সম্মাননাপত্র।

অনুষ্ঠানে নৃত্য, সংগীত, আবৃত্তি ও ছবি আঁকার বিজয়ী ২৬ জন শিশুকে বই পুরস্কার দেওয়া হয়। পিএসসিতে জিপিএ ৫ প্রাপ্ত ০৬ জন এবং জেএসসিতে জিপিএ ৫ প্রাপ্ত ০৭ জন ছাত্রীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়।

প্রধান অতিথি রফিকুল হক দাদুভাই বলেন, আনন ফাউন্ডেশন শিশুর বিকাশে যে কাজটি করে যাচ্ছে তাতে আমার নৈতিক সমর্থন রয়েছে। এটি অনেক মহৎ একটি উদ্যোগ। সকলের এই কাজের সাথে সম্পৃক্ত হওয়ার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। অন্যান্য বক্তারা আনন ফাউন্ডেশনের সকল কর্মতৎপরতাকে সাধুবাদ জানান এবং ফাউন্ডেশনের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করে সারাদেশে শাখা-প্রশাখা খোলার অভিমত ব্যক্ত করেন। আনন ফাউন্ডেশনের সভাপতি স.ম. শামসুল আলম বলেন, আমরা শিশু গড়ার অঙ্গীকারে যে কাজটি হাতে নিয়েছি তা সফল করা খুব কঠিন কাজ। আমাদের স্বপ্ন এবং ইচ্ছেটা অনেক বড় কিন্তু সাধ্য সীমিত। এখনও পর্যন্ত কোনো স্পন্সর না পেলেও সাধ্যানুসারে কাজ করে যাচ্ছি। সকলের ভালোবাসা-দোয়া-আশীর্বাদ সাথে থাকলে এভাবে এগিয়ে যেতে পারব।

আনন ফাউন্ডেশনের ষষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে আনন ফাউন্ডেশনের শিশু-কিশোরদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয় এবং প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে প্রকাশিত একটি বৃহৎ সংকলন সকলের মধ্যে বিতরণ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..