শিরোনাম :
বিশ্বকাপ ফুটবল খেলায় জয় পেয়েছে সুইডেন, বেলজিয়াম এবং ইংল্যাণ্ড অবৈধ অভিবাসন প্রত্যাশী মা বাবার কাছ থেকে শিশুদের পৃথক করার ট্রাম্প প্রশাসনের নীতির পক্ষে যুক্তি দিচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা প্রধান বিডি নিউজ ২৪ ডটকমের ওয়েবসাইট বন্ধের নির্দেশ রাশিয়া বিশ্বকাপ ২০১৮ টিভিতে আজকের খেলা চীন গেলেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম রাজধানীতে মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ৩৩ জন গ্রেফতার রাশিয়া যাওয়ার পথে মারাত্মক দুর্ঘটনারি মুখে পড়েছিল সৌদি আরবের ফুটবল টিম গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী কে বিজয়ী করতে প্রচার-প্রচারণায় নামছে কেন্দ্রীয় ১৪ দল।  যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরীয় সেনাবাহিনী আসন্ন যৌথ মহড়াটি বাতিল গত বছর ১০ লাখ ৮ হাজার ৫২৫ জন কর্মী প্রেরণ করে দেশের বৈদেশিক কর্মসংস্থানের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রেকর্ড স্থাপন করেছে : নুরুল ইসলাম

সেমিফাইনালিস্ট রিয়াল মাদ্রিদ ২-১ গোলে মালাগাকে পরাজিত করেছে

লা লিগায় ইসকোর প্রথম ফ্রি-কিক ও কাসেমিরোর দারুন এক গোলে চ্যাম্পিয়নস লীগের সেমিফাইনালিস্ট রিয়াল মাদ্রিদ রোববার ২-১ গোলে মালাগাকে পরাজিত করেছে। এই পরাজয়ে ইসকোর সাবেক ক্লাবটি রেলিগেশন জোনের খুব কাছাকাছি পৌঁছে গেছে।
সপ্তাহের মাঝামাঝিতে জুভেন্টাসের বিপক্ষে নাটকীয় ম্যাচে রিয়ালকে বাঁচানো ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো ও গ্যারেথ বেলকে দলের বাইরে রেখেছিলেন কোচ জিনেদিন জিদান। অন্যদিকে মার্সেলো ও টনি ক্রুস ছিলেন বদলী বেঞ্চে। কিন্তু মূল একাদশের এই পরিবর্তন সত্তেও সব ধরনের প্রতিযোগিতায় টানা পঞ্চম এ্যাওয়ে গোল তুলে নিতে মাদ্রিদকে খুব একটা কষ্ট করতে হয়নি। রোনাল্ডোর অনুপস্থিতিতে দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন স্প্যানিশ তারকা ইসকো। ২৯ মিনিটে এই প্লেমেকারের কার্লিং ফ্রি-কিক থেকে মালাগা গোলরক্ষক রবার্তো জিমেনেজ বোকা হয়ে যান। মাদ্রিদের জন্য এটি ছিল ২৫তম সেট পিস গোল, এক মৌসুমে লা লিগার কোন ক্লাবের জন্য যা সর্বোচ্চ। এরপর দ্বিতীয়ার্ধে কাসেমিরোর গোলের যোগানদাতাও ছিলেও ইসকো। ৬৩ মিনিটে কাসেমিরোর গোলে লা রোসালেডায় সফরকারীদের জয় নিশ্চিত হয়। ম্যাচ শেষের ইনজুরি টাইমে দিয়েগো রোলানের গোল পরাজয়ের ব্যবধান কমিয়েছে। এই জয়ে ভ্যালেন্সিয়াকে দুই পয়েন্ট পিছনে ফেলে আবারো টেবিলের তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে রিয়াল।
যদিও কাসেমিরোর গোলের আগে ম্যাচে ফিরে আসার সুযোগ পেয়েছিল মালাগা। কেইলর নাভাসকে একা পেয়েও তা কাজে লাগাতে পারেননি ম্যানুয়েল ইটুরা। টেবিলের তলানিতে থাকা হোসে গঞ্জালেসের দল এখন সেফ জোন থেবে ১৪ পয়েন্ট দুরে রয়েছে, হাতে রয়েছে আর মাত্র ৬টি ম্যাচ।
রোনাল্ডো, বেল বিহীন মাদ্রিদ দলের মূল একাদশে কিছুটা বাড়তি দায়িত্ব নিয়েই মাঠে নেমেছিলেন করিম বেনজেমা। ম্যাচের শুরুতে কয়েকটি আক্রমনও করেছিলেন এই ফ্রেঞ্চম্যান। ২৩ মিনিটে ইসকোর দারুন এক থ্রুবলে লুকাস ভাসকুয়েজ তাড়াহুড়া করে শট নিতে গেলে তা ক্রসবারের অনেক উপর দিয়ে বাইরে চলে যায়। কাসেমিরোর ক্রস থেকে বেনজেমার হেডও গোলের ঠিকানা খুঁজে পায়নি। কিন্তু ২৯ মিনিটে আর ভুল করেননি ইসকো। ২৫ গজ দুর থেকে তার দুর্দান্ত ফ্রি-কিকেই মাদ্রিদ এগিয়ে যায়। সাবেক ক্লাবের বিপক্ষে ইসকোর এই গোল স্বাগতিক সমর্থকদের প্রশংসা কুড়িয়েছে। বিরতির ঠিক আগে ইটুরার শট নাভাসের দুই পায়ের মাঝখানে আটকে গেলে সমতায় ফেরা হয়নি মালাগার।
কিছুটা আগ্রাসী হয়ে বিরতির পরে মাঠে নামে মালাগা। আলবার্তো বুয়েনোর হেড অল্পের জন্য দলকে গোল উপহার দেয়নি। তবে ৬৩ মিনিটে কার্যত মালাগার সব আশা শেষ করে দেয় কাসেমিরো। ২০১৩ সালে মালাগা ছেড়ে মাদ্রিদে যোগ দেয়া ইসকোই ছিলেন এই গোলের মূল কারিগর। বেনজেমার কাছ থেকে বক্সের ভিতর বল পান ইসকো। দারুন এক পাসে পাশে দাঁড়ানো কাসেমিরোকে দিয়ে মৌসুমের পঞ্চম গোলটি উপহার দেন ইসকো। আর এতেই মাদ্রিদের জয় নিশ্চিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..